ঢাকা ০২:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে ফার্নিচার ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৫:০১:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ এপ্রিল ২০২২ ২৪৭ বার পড়া হয়েছে

৪ এপ্রিল ২০২২,আজকের মেঘনা ডটকম, নবীনগর প্রতিনিধি :ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় আতিকুর রহমান সুমন (২৮) নামে এক ফার্নিচার ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ সোমবার ভোর ৫টায় উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের বাঘাউড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুমন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আলিপুর গ্রামের মৃত আবু মিয়ার ছেলে।

 

স্থানীয়রা বলেন, সুমন খুব ভালো ছেলে ছিলেন। আজ ১৫ বছর ধরে এই গ্রামে বসবাস করে আসছেন তিনি। বাজারে তাঁর একটি ফার্নিচার দোকান আছে। আগের দিন রাতে তাঁর দোকানে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। আজ ভোরে তাঁকে গুলি করে হত্যা করে।

 

পার্শ্ববর্তী ব্যবসায়ীরা জানান, প্রথম রোজার সেহরির পর তাঁর দোকানে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। এরপর আজকে তাঁকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

নবীনগর থানা-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রসিদ জানান, বাঘাউড়া গ্রামের বাজারে সুমনের একটি ফার্নিচারের দোকান আছে। তিনি ওই গ্রামের একটি বাড়িতে বেশ কয়েক বছর ধরে ভাড়া থাকতেন। সোমবার ভোরে সাহরি খাওয়ার জন্য ঘুম থেকে ওঠেন তিনি। সাহরি খেয়ে ঘর থেকে বের হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কে বা কারা তাঁকে গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। ধারণা করা হচ্ছে পরিকল্পিতভাবে তাঁকে খুন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

নবীনগরে ফার্নিচার ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা

আপডেট সময় : ০৫:০১:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ এপ্রিল ২০২২

৪ এপ্রিল ২০২২,আজকের মেঘনা ডটকম, নবীনগর প্রতিনিধি :ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় আতিকুর রহমান সুমন (২৮) নামে এক ফার্নিচার ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ সোমবার ভোর ৫টায় উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের বাঘাউড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুমন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আলিপুর গ্রামের মৃত আবু মিয়ার ছেলে।

 

স্থানীয়রা বলেন, সুমন খুব ভালো ছেলে ছিলেন। আজ ১৫ বছর ধরে এই গ্রামে বসবাস করে আসছেন তিনি। বাজারে তাঁর একটি ফার্নিচার দোকান আছে। আগের দিন রাতে তাঁর দোকানে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। আজ ভোরে তাঁকে গুলি করে হত্যা করে।

 

পার্শ্ববর্তী ব্যবসায়ীরা জানান, প্রথম রোজার সেহরির পর তাঁর দোকানে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। এরপর আজকে তাঁকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

নবীনগর থানা-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রসিদ জানান, বাঘাউড়া গ্রামের বাজারে সুমনের একটি ফার্নিচারের দোকান আছে। তিনি ওই গ্রামের একটি বাড়িতে বেশ কয়েক বছর ধরে ভাড়া থাকতেন। সোমবার ভোরে সাহরি খাওয়ার জন্য ঘুম থেকে ওঠেন তিনি। সাহরি খেয়ে ঘর থেকে বের হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কে বা কারা তাঁকে গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। ধারণা করা হচ্ছে পরিকল্পিতভাবে তাঁকে খুন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।