রৌমারীতে ছাত্রলীগের নাম করে মসজিদ নির্মাণ কাজ থেকে চাঁদা দাবি

প্রকাশিত: ১০:৫৯ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯

কুড়িগ্রাম রৌমারী উপজেলার খঞ্জন মারা গ্রামে কুয়েত ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে নির্মাণাধীণ মসজিদের কাজে নিয়োজিত ফোরম্যানকে হুমকি দেন নামধারি ছাত্রলীগের আমিনুদ্দৌলা অর্পূব ও ইমরান শরিফ রিয়ন।

সরেজমিনে গেলে মসজিদ নির্মাণ কাজে নিয়োজিত ফোরম্যান আনোয়ার হোসেন জানান, কয়েক দিন থেকে ছাত্রলীগ পরিচয় দিয়ে চাঁদা দাবি করে আসছে অপূর্ব ও রিয়ন। টাকা না দিলে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেন। তিনি আরও বলেন, ওই দুইজন বলেন, আমরা ছাত্রলীগ করি এবং মন্ত্রীর ছোট ভাই। মন্ত্রীর নিচে আমরা ছাড়া আর রৌমারীতে কেউ নাই। এই হুমকি দিয়ে তারা চলে যান। আমি বিষয়টি মসজিদ কমিটি ও এলাকার লোকজনকে জানাই। গত শনিবার আবারও তারা এসে বলে কম পক্ষে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে হবে। না দিলে কাজ বন্ধ করবি। কাজ বন্ধ না করলে উঠিয়ে নেওয়ার হুমকি দেন তারা।

এব্যাপারে ওই মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলী বলেন, কাজে নিয়োজিত ফোরম্যান আনোয়ার হোসেন চাঁদা চাওয়ার বিষয়টি আমাকে জানায়, পরে আমি উপজেলা আওয়ামীলীগের এক নেতাকে অবহিত করি। তিনি বিষয়টি নিস্পত্তি করে দেওয়ার আশ্বাস দেন।
ইমরান শরিফ রিয়ন এর সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি চাঁদা চাওয়ার বিষয়টি অস্বিকার করে বলেন, আমরা কোনো চাঁদা চাইনি।
এব্যাপারে রৌমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সালমান ফারসি তুষার জানান, অপূর্ব ও রিয়ন ছাত্রলীগের কোনো তালিকায় তাদের নাম নেই।
এপ্রসঙ্গে রৌমারী উপজেলা ছাত্রলীগরে সভাপতি সোহেল রানা জানান, আমার জানা মতে, ছাত্রলীগের উপজেলা, ইউনিয়ন ও কলেজ কমিটিতে তাদের নাম নেই। তবে অর্পূবের বাবা আওয়ামী লীগ করেন। সে আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান।