বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবে রোহিঙ্গাদের সায়।

প্রকাশিত: ৯:৩৫ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯

রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে কয়েকটি প্রস্তাব উপস্থাপন করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ তার প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছেন মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশের কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা৷
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ‘পরিস্থিতির ভয়াবহতা’ অনুভব করার আহ্বান জানান৷ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে রাখাইন ছেড়ে বাংলাদেশে আসতে শুরু করেন রোহিঙ্গারা; এই সংখ্যা কিছু দিনের মধ্যে পৌঁছে যায় সাত লাখে৷ আর আগে থেকেপালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও খাদ্য সরবরাহ করে বাংলাদেশ পরিস্থিতি দারুণভাবে সামাল দিলেও তাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে ফেরাতে আন্তর্জাতিক উদ্যোগে সাফল্য আসেনি একেবারেই৷ এরইমধ্যে কক্সবাজারে স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও রোহিঙ্গাদের মধ্যে কিছুটা উত্তেজনা বিরাজ করছে৷ অনেক বাংলাদেশিই মনে করছেন, রোহিঙ্গাদের আর কখনই মিয়ানমারে ফেরানো সম্বব হবে না৷জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চারটি প্রস্তাব নিম্নরূপ:
১) মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের কার্যকর প্রত্যাবাসনে উদ্যোগ নিয়ে সংকট নিরসনে রাজনৈতিক সদিচ্ছার প্রতিফলন ঘটাতে হবে৷
২) মিয়ানমারকে বৈষম্যমূলক আইনের বিলোপ ঘটাতে হবে এবং রোহিঙ্গা প্রতিনিধিদের উত্তর রাখাইন অঞ্চল সরেজমিনে পরিদর্শনের অনুমতি দিতে হবে৷
৩) রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে আন্তর্জাতিক বেসামরিক পরিদর্শক মোতায়েন করতে হবে৷
৪) রোহিঙ্গা সংকটের মূল কারণ দূর করা, মানবাধিকার লঙ্ঘন ও অন্যান্য অপরাধের সুষ্ঠু বিচার আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে নিশ্চিত করতে হবে৷