ঢাকা ০৭:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গজারিয়ায় স্কুল শিক্ষকের আত্মহত্যা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৫:০৪:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০১৯ ৩২২ বার পড়া হয়েছে

৯ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, গজারিয়া প্রতিনিধি :

: গজারিয়া উপজেলায় বালুয়াকান্দিতে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়ার জের ধরে শশুর বাড়ির লোকজনের মারধরের শিকার হয়ে কীটনাশক পান করে সোলায়মান প্রধান (৩০) নামে এক স্কুল শিক্ষক আত্মহত্যা করেছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের আতিকনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সোলায়মান প্রধান ওই গ্রামের আব্দুল মালেক প্রধানের ছেলে। সে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মোজাফ্ফর আলী হাই স্কুলের সহকারী শিক্ষক।
গজারিয়া থানার ওসি মো. হারুন-অর-রশিদ জানান, রাত সাড়ে ৯ টার দিকে আতিকনগর গ্রামের নিজ বাড়িতে স্কুল শিক্ষক সোলায়মান প্রধান ও তার স্ত্রী মহাসীনা সরকারের মধ্যে ঝগড়া হয়। খবর পেয়ে শশুর বাড়ির লোকজন ছুটে এসে স্কুল শিক্ষক সোলায়মানকে মারধর করে। মহাসীনা সরকার একই গ্রামের মনসুর আলী সরকারের মেয়ে। সম্প্রতি একই গ্রামের স্কুল শিক্ষক সোলায়মান ও মহাসীনা সরকারের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কের পর বিয়ে হয়।
এদিকে, শশুর বাড়ির লোকজনের মারধর শিকার হওয়ার পর ওই স্কুল শিক্ষক নিজ বাড়িতে থাকা কীটনাশক পান করে। এতে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে সেখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষনা করেন। ঢামেকের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে স্কুল শিক্ষকের মরদেহ গতকাল শনিবার বিকেলে গ্রামের বাড়িতে আনা হয়। এ ঘটনায় গজারিয়া থানায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে। নিহত সোলামানের প্রতিবেশীরা জানান সোলায়মান একজন কর্মঠ লোক ছিল,সে কাজকে ভালোবাসতো, কারো সাথে তার কোন ঝগড়া বিবাদ ছিল না, এ ঘটনায় তার প্রতিবেশীরও মর্মাহত।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

গজারিয়ায় স্কুল শিক্ষকের আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ০৫:০৪:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০১৯

৯ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, গজারিয়া প্রতিনিধি :

: গজারিয়া উপজেলায় বালুয়াকান্দিতে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়ার জের ধরে শশুর বাড়ির লোকজনের মারধরের শিকার হয়ে কীটনাশক পান করে সোলায়মান প্রধান (৩০) নামে এক স্কুল শিক্ষক আত্মহত্যা করেছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের আতিকনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সোলায়মান প্রধান ওই গ্রামের আব্দুল মালেক প্রধানের ছেলে। সে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মোজাফ্ফর আলী হাই স্কুলের সহকারী শিক্ষক।
গজারিয়া থানার ওসি মো. হারুন-অর-রশিদ জানান, রাত সাড়ে ৯ টার দিকে আতিকনগর গ্রামের নিজ বাড়িতে স্কুল শিক্ষক সোলায়মান প্রধান ও তার স্ত্রী মহাসীনা সরকারের মধ্যে ঝগড়া হয়। খবর পেয়ে শশুর বাড়ির লোকজন ছুটে এসে স্কুল শিক্ষক সোলায়মানকে মারধর করে। মহাসীনা সরকার একই গ্রামের মনসুর আলী সরকারের মেয়ে। সম্প্রতি একই গ্রামের স্কুল শিক্ষক সোলায়মান ও মহাসীনা সরকারের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কের পর বিয়ে হয়।
এদিকে, শশুর বাড়ির লোকজনের মারধর শিকার হওয়ার পর ওই স্কুল শিক্ষক নিজ বাড়িতে থাকা কীটনাশক পান করে। এতে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে সেখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষনা করেন। ঢামেকের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে স্কুল শিক্ষকের মরদেহ গতকাল শনিবার বিকেলে গ্রামের বাড়িতে আনা হয়। এ ঘটনায় গজারিয়া থানায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে। নিহত সোলামানের প্রতিবেশীরা জানান সোলায়মান একজন কর্মঠ লোক ছিল,সে কাজকে ভালোবাসতো, কারো সাথে তার কোন ঝগড়া বিবাদ ছিল না, এ ঘটনায় তার প্রতিবেশীরও মর্মাহত।