ঢাকা ০৮:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ০৮ জুন ২০২৪, ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুপারিশে নয়, নীতিমালা অনুযায়ী এমপিও : শিক্ষামন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৩:২৫:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০১৯ ৩০৯ বার পড়া হয়েছে

১১ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি .কম ,ডেস্ক রিপোর্ট :

 

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার ক্ষেত্রে নীতিমালার বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই। তবে অনেক বেশি সংখ্যক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভূক্ত করা হবে। আর এখন থেকে এমপিওভুক্তর জন্য আর ১০ বছর অপেক্ষা করতে হবে না। যেসব প্রতিষ্ঠান যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি, তারা যোগ্যতা অর্জন করলে এমপিওভুক্ত হবে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) জাতীয় সংসদে এক সম্পূরক প্রশ্নে সরকার দলীয় এমপি খন্দকার গোলাম ফারুক এমপিদের সুপারিশের ভিত্তিতে এমপিওভুক্তির প্রস্তাব করেন। তার জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন।

সম্পূরক প্রশ্নে খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, তারা রাজনৈতিক দল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনের আগে এমপিওভুক্তির অঙ্গীকার ছিল। জনগণ সবকিছুর জন্য এমপিদের কাছে আসেন। তিনি জানতে চান শুধু নীতিমালা নয়, এমপিদের কাছ থেকে তালিকা নিয়ে এবং তাদের সুপারিশের ভিত্তিতে এমপিওভুক্ত করা হবে কি না।

জবাবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, শেখ হাসিনার সরকার সবকিছুতে যোগ্যতার মাপকাঠিকে গুরুত্ব দিচ্ছে। অতীতে দেখা গেছে, কীভাবে দলীয় বিবেচনাকে অপব্যবহার করে দেশে যোগ্যতাকে ছুড়ে ফেলা হয়েছে, মানকে গুরুত্ব দেয়া হয়নি, ন্যাক্কারজনকভাবে সবক্ষেত্রে দলীয়করণ করা হয়েছে। বর্তমান সরকার জনগণের সরকার। জনগণের অধিকারের ব্যাপারে শেখ হাসিনার সরকার সচেতন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার ক্ষেত্রে যোগ্যতাকে বড় মাপকাঠি ধরা হচ্ছে। কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে যোগ্যতা শিথীল করারও ব্যবস্থা আছে। দুর্গম অঞ্চল, হাওর অঞ্চল, চরাঞ্চল, বিশেষায়িত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়া অন্য ক্ষেত্রে শৈথিল্য দেখানোর সুযোগ নীতিমালায় নেই। নীতিমালার বাইরে গিয়ে কিছু করার সুযোগ আছে বলে তিনি মনে করেন না।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবার আর ১০ বছর অপেক্ষা করতে হবে না। যেসব প্রতিষ্ঠান যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি, তারা যোগ্যতা অর্জন করলে এমপিওভুক্ত হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

সুপারিশে নয়, নীতিমালা অনুযায়ী এমপিও : শিক্ষামন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৩:২৫:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০১৯

১১ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি .কম ,ডেস্ক রিপোর্ট :

 

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার ক্ষেত্রে নীতিমালার বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই। তবে অনেক বেশি সংখ্যক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভূক্ত করা হবে। আর এখন থেকে এমপিওভুক্তর জন্য আর ১০ বছর অপেক্ষা করতে হবে না। যেসব প্রতিষ্ঠান যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি, তারা যোগ্যতা অর্জন করলে এমপিওভুক্ত হবে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) জাতীয় সংসদে এক সম্পূরক প্রশ্নে সরকার দলীয় এমপি খন্দকার গোলাম ফারুক এমপিদের সুপারিশের ভিত্তিতে এমপিওভুক্তির প্রস্তাব করেন। তার জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন।

সম্পূরক প্রশ্নে খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, তারা রাজনৈতিক দল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনের আগে এমপিওভুক্তির অঙ্গীকার ছিল। জনগণ সবকিছুর জন্য এমপিদের কাছে আসেন। তিনি জানতে চান শুধু নীতিমালা নয়, এমপিদের কাছ থেকে তালিকা নিয়ে এবং তাদের সুপারিশের ভিত্তিতে এমপিওভুক্ত করা হবে কি না।

জবাবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, শেখ হাসিনার সরকার সবকিছুতে যোগ্যতার মাপকাঠিকে গুরুত্ব দিচ্ছে। অতীতে দেখা গেছে, কীভাবে দলীয় বিবেচনাকে অপব্যবহার করে দেশে যোগ্যতাকে ছুড়ে ফেলা হয়েছে, মানকে গুরুত্ব দেয়া হয়নি, ন্যাক্কারজনকভাবে সবক্ষেত্রে দলীয়করণ করা হয়েছে। বর্তমান সরকার জনগণের সরকার। জনগণের অধিকারের ব্যাপারে শেখ হাসিনার সরকার সচেতন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার ক্ষেত্রে যোগ্যতাকে বড় মাপকাঠি ধরা হচ্ছে। কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে যোগ্যতা শিথীল করারও ব্যবস্থা আছে। দুর্গম অঞ্চল, হাওর অঞ্চল, চরাঞ্চল, বিশেষায়িত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়া অন্য ক্ষেত্রে শৈথিল্য দেখানোর সুযোগ নীতিমালায় নেই। নীতিমালার বাইরে গিয়ে কিছু করার সুযোগ আছে বলে তিনি মনে করেন না।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবার আর ১০ বছর অপেক্ষা করতে হবে না। যেসব প্রতিষ্ঠান যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি, তারা যোগ্যতা অর্জন করলে এমপিওভুক্ত হবে।