ঢাকা ০৮:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গজারিয়ায় নববধূকে শ্বাসরোধে হত্যা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৩:৪১:৫৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯ ১৫৫ বার পড়া হয়েছে

১৩ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি .কম ,এম ডি ওসমান :

হাতের মেহেদীর আলতা রং শুকোয়নি কিন্তু পাষন্ড স্বামী তার নব বিবাহিত স্ত্রীর জীবন প্রদীপ নিবিয়ে দিয়েছে গলা টিপে হত্যার মাধ্যমে।

বুধবার (১২ জুন) আনুমানিক সকাল সাড়ে দশটার দিকে সদ্য বিবাহিত স্ত্রী সোহানা আক্তার (১৭) নববধূকে কে গলা টিপে হত্যা করেছে স্বামী সাইদুল ইসলাম (২৩)।

ঘটনাটি ঘটেছে গজারিয়া উপজেলা বাউশিয়া ইউনিয়নে চর বাউশিয়া বড়কান্দি গ্রামে।পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনার স্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে মুন্সিগঞ্জ জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহত সোহানা আক্তারে চাচা আলী আহম্মদ স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের জানান, গত তিন মাস পূর্বে একই ইউনিয়নের বাউশিয়া নয়াকান্দি গ্রামের মো. আজিজ মিয়ার ছেলে সাইদুল ইসলামের সাথে আমার বড় ভাইয়ের (সোহেল) মেয়ে সোহানার বিবাহ দেয়।পরে জানা যায় ঐ ছেলে মাদকে আসক্ত। বিবাহের পর থেকে নেশার টাকার জন্য বার বার আমার ভাতিজি সোহানা আক্তারকে নির্যাতন করতে থাকে। আজ (বুধবার) সকালে সোহানার কাছে নেশার জন্য টাকা চায় সাইদুল। টাকা দিতে অসম্মতি জানালে সোহানাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায় ঘাতক স্বামী সাইদুল ইসলাম।

এ বিষয়ে গজারিয়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ হারুন অর-রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

গজারিয়ায় নববধূকে শ্বাসরোধে হত্যা

আপডেট সময় : ০৩:৪১:৫৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯

১৩ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি .কম ,এম ডি ওসমান :

হাতের মেহেদীর আলতা রং শুকোয়নি কিন্তু পাষন্ড স্বামী তার নব বিবাহিত স্ত্রীর জীবন প্রদীপ নিবিয়ে দিয়েছে গলা টিপে হত্যার মাধ্যমে।

বুধবার (১২ জুন) আনুমানিক সকাল সাড়ে দশটার দিকে সদ্য বিবাহিত স্ত্রী সোহানা আক্তার (১৭) নববধূকে কে গলা টিপে হত্যা করেছে স্বামী সাইদুল ইসলাম (২৩)।

ঘটনাটি ঘটেছে গজারিয়া উপজেলা বাউশিয়া ইউনিয়নে চর বাউশিয়া বড়কান্দি গ্রামে।পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনার স্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে মুন্সিগঞ্জ জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহত সোহানা আক্তারে চাচা আলী আহম্মদ স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের জানান, গত তিন মাস পূর্বে একই ইউনিয়নের বাউশিয়া নয়াকান্দি গ্রামের মো. আজিজ মিয়ার ছেলে সাইদুল ইসলামের সাথে আমার বড় ভাইয়ের (সোহেল) মেয়ে সোহানার বিবাহ দেয়।পরে জানা যায় ঐ ছেলে মাদকে আসক্ত। বিবাহের পর থেকে নেশার টাকার জন্য বার বার আমার ভাতিজি সোহানা আক্তারকে নির্যাতন করতে থাকে। আজ (বুধবার) সকালে সোহানার কাছে নেশার জন্য টাকা চায় সাইদুল। টাকা দিতে অসম্মতি জানালে সোহানাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায় ঘাতক স্বামী সাইদুল ইসলাম।

এ বিষয়ে গজারিয়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ হারুন অর-রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।