ঢাকা ১০:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গজারিয়ায় ভাইয়ের আঘাতে বোন আহত : থানায় অভিযোগ।

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ১১:১৪:১১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯ ১৬১ বার পড়া হয়েছে

১৩ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, এম ডি ওসমান

: গজারিয়া উপজেলার বড় রায়পাড়া গ্রামে পৈতৃক সম্পত্তির হিস্যা নিয়ে আপন বোন ফাতেমা (৩৫)কে পিটিয়ে আহত করেছে তার বড় ভাই ও ভাতিজারা । আজ বৃহস্পতিবার গজারিয়া উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের বড়রায় পাড়া গ্রামের ব্যাপারী বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ফাতেমা তার জায়গা দেখাসোনা করতে গেলে বড় ভাই মনির হোসেন (৫৫), ও তার ছেলেরা ফাতেমা কে লাঠিসেটা ও বটি দিয়ে মেরে মাটিতে ফেলে রাখে, পরে ফাতেমার স্বামী রোকন মিয়া ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে ফাতেমাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেলেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেন। আহত ফাতেমা জানান তার বড় ভাই মনির হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন একাধিকবার মেরে হাসপাতালে পাঠিয়েছে এ বিষয়ে থানায় মামলাও রয়েছে। তাকে বিটা মাটি ছাড়া করতে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তারা। এই ঘটনায় ফাতেমা নিজে বাদি হয়ে বড় ভাই মনির হোসেন ও তার ছেলে মোতালেব, মোশাররফ, মোরশেদ, অপু, নাম উল্লেখ করে গজারিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনর রশিদ জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

গজারিয়ায় ভাইয়ের আঘাতে বোন আহত : থানায় অভিযোগ।

আপডেট সময় : ১১:১৪:১১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯

১৩ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, এম ডি ওসমান

: গজারিয়া উপজেলার বড় রায়পাড়া গ্রামে পৈতৃক সম্পত্তির হিস্যা নিয়ে আপন বোন ফাতেমা (৩৫)কে পিটিয়ে আহত করেছে তার বড় ভাই ও ভাতিজারা । আজ বৃহস্পতিবার গজারিয়া উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের বড়রায় পাড়া গ্রামের ব্যাপারী বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ফাতেমা তার জায়গা দেখাসোনা করতে গেলে বড় ভাই মনির হোসেন (৫৫), ও তার ছেলেরা ফাতেমা কে লাঠিসেটা ও বটি দিয়ে মেরে মাটিতে ফেলে রাখে, পরে ফাতেমার স্বামী রোকন মিয়া ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে ফাতেমাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেলেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেন। আহত ফাতেমা জানান তার বড় ভাই মনির হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন একাধিকবার মেরে হাসপাতালে পাঠিয়েছে এ বিষয়ে থানায় মামলাও রয়েছে। তাকে বিটা মাটি ছাড়া করতে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তারা। এই ঘটনায় ফাতেমা নিজে বাদি হয়ে বড় ভাই মনির হোসেন ও তার ছেলে মোতালেব, মোশাররফ, মোরশেদ, অপু, নাম উল্লেখ করে গজারিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনর রশিদ জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।