ঢাকা ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০৮ জুন ২০২৪, ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আটককৃত ১০ ডাকাত কে কোর্টে প্রেরন করলেন মেঘনা থানা পুলিশ।

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৬:১৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯ ২৩৯ বার পড়া হয়েছে

১৪ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, নিজস্ব প্রতিনিধি :

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায় ১০ জন ডাকাত কে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করে মেঘনা থানার পুলিশ,।
গোপন সংবাদ এর ভিত্তিতে , মেঘনা থানাধীন কান্দারগাও সি এন জি স্ট্যান্ডের পূর্বে শেখের গাও যাওয়ার পথে রাস্তার উপর বৃহস্পতিবার ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে এক দল ডাকাত প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন মেঘনা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মজিদ এর নির্দেশে এস আই আসেকুল ইসলাম ,এস আই নাজিম উদ্দিন , এস আই সালামত এস আই মামুন সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দেশিয় অস্ত্র সহ ১০ জন কে আটক করতে সক্ষম হয়,
পুলিশের ধাওয়া খেয়ে আরো ৮ /১০ জন পালিয়ে যায়। এই বিষয়ে পুলিশ বাদি হয়ে মেঘনা থানায় একটি ডাকাতির মামলা দায়ের করেন। মামলায় আসামীরা হলেন
গজারিয়া উপজেলার ভবের চরের শফিক এর ছেলে মোহাম্মদ রাসেল, পৈক্কার পাড়ের হাজী আমির হোসেন এর ছেলে মমিনুর রহমান মেঘনা উপজেলার শেখের গাও গ্রামের মৃত ফিরোজ মিয়ার ছেলে আবুল বাশার, লক্ষীপুরের বাবুল এর ছেলে মাসুম ও সিদ্দিক সরকার , চর বাউশিয়ার শহিদুল্লাহ বেপারীর ছেলে মোহাম্মদ ফেরদৌস , পুরাচক বাউশিয়া গজারিয়ার বাহাদুল্লার ছেলে আলামিন . নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার জাঙ্গালিয়া র মৃত আবদুর রাজ্জাকের ছেলে মাকসুদ আলম, গজারিয়া চর বাউশিয়ার মৃত ফয়েজ উদ্দিন এর ছেলে রবিউল আউয়াল এবং মুন্সীগঞ্জ গজারিয়ার দড়ি বাউশিয়া মুন্সীগঞ্জ এর মৃত আক্তার হোসেনের ছেলে মো: ইমরান । তদন্ত কারী কর্মকর্তা মেঘনা থানার এস আই নিরস্ত্র মোহাম্মদ আবুল খায়ের। আজ শুক্রবার আসামীদের কুমিল্লা কোর্টে প্রেরণ করা হয় ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

আটককৃত ১০ ডাকাত কে কোর্টে প্রেরন করলেন মেঘনা থানা পুলিশ।

আপডেট সময় : ০৯:৫৬:১৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯

১৪ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, নিজস্ব প্রতিনিধি :

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায় ১০ জন ডাকাত কে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করে মেঘনা থানার পুলিশ,।
গোপন সংবাদ এর ভিত্তিতে , মেঘনা থানাধীন কান্দারগাও সি এন জি স্ট্যান্ডের পূর্বে শেখের গাও যাওয়ার পথে রাস্তার উপর বৃহস্পতিবার ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে এক দল ডাকাত প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন মেঘনা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মজিদ এর নির্দেশে এস আই আসেকুল ইসলাম ,এস আই নাজিম উদ্দিন , এস আই সালামত এস আই মামুন সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দেশিয় অস্ত্র সহ ১০ জন কে আটক করতে সক্ষম হয়,
পুলিশের ধাওয়া খেয়ে আরো ৮ /১০ জন পালিয়ে যায়। এই বিষয়ে পুলিশ বাদি হয়ে মেঘনা থানায় একটি ডাকাতির মামলা দায়ের করেন। মামলায় আসামীরা হলেন
গজারিয়া উপজেলার ভবের চরের শফিক এর ছেলে মোহাম্মদ রাসেল, পৈক্কার পাড়ের হাজী আমির হোসেন এর ছেলে মমিনুর রহমান মেঘনা উপজেলার শেখের গাও গ্রামের মৃত ফিরোজ মিয়ার ছেলে আবুল বাশার, লক্ষীপুরের বাবুল এর ছেলে মাসুম ও সিদ্দিক সরকার , চর বাউশিয়ার শহিদুল্লাহ বেপারীর ছেলে মোহাম্মদ ফেরদৌস , পুরাচক বাউশিয়া গজারিয়ার বাহাদুল্লার ছেলে আলামিন . নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার জাঙ্গালিয়া র মৃত আবদুর রাজ্জাকের ছেলে মাকসুদ আলম, গজারিয়া চর বাউশিয়ার মৃত ফয়েজ উদ্দিন এর ছেলে রবিউল আউয়াল এবং মুন্সীগঞ্জ গজারিয়ার দড়ি বাউশিয়া মুন্সীগঞ্জ এর মৃত আক্তার হোসেনের ছেলে মো: ইমরান । তদন্ত কারী কর্মকর্তা মেঘনা থানার এস আই নিরস্ত্র মোহাম্মদ আবুল খায়ের। আজ শুক্রবার আসামীদের কুমিল্লা কোর্টে প্রেরণ করা হয় ।