ঢাকা ০৩:৪৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৯ জুন ২০২৪, ২৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রী সবসময় ডেঙ্গু পরিস্থিতির খোঁজ-খবর নিচ্ছেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ১২:৩৪:৪৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ অগাস্ট ২০১৯ ৩৫২ বার পড়া হয়েছে

৩ আগষ্ট ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্ট :     প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময় ডেঙ্গু পরিস্থিতির খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। তিনি নির্দেশ দিয়েছেন, ডেঙ্গু আক্রান্তরা যেন বিনামূল্য চিকিৎসা পায়। তাছাড়া, এ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ২৪ ঘণ্টা কাজ করছে। ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা যদি বেড়ে যায়, তাদের চিকিৎসার জন্য আরও তিনটি হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে। যেমন- শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউট দেড়শ’ রোগীর জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুর ১টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নতুন ভবনে ভর্তি ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের খোঁজ-খবর নিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু এখন নিয়ন্ত্রণে আছে। ঢামেকে এখন পর্যন্ত এ রোগে ১১ জন মারা গেছে। তবে, তারা ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার আগেই নানা রোগে আক্রান্ত ছিল।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গত তিন দিন পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, আগের চেয়ে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা অনেক কমেছে। ঢামেকে মোট ভর্তি ছিল ২ হাজার ৭শ’ ৯৪ জন। ছাড়পত্র পেয়েছে ২ হাজার ৯০ জন। এখন ভর্তি আছে ৬শ’ ৯৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছে ৫৪ জন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সারাদেশে মোট কত জন ডেঙ্গু রোগী মারা গেছে তা পর্যালোচনা করে পরে জানাবো।

জাহিদ মালেক বলেন, আমাদের চিকিৎসকরা ২৪ ঘণ্টা ডেঙ্গু আক্রান্তদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। ১৩ সদস্যের একটি বিষেশজ্ঞ দল সব জেলায় ছুটে যাচ্ছে ও সেখানকার চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। কোনো বিভ্রান্তিতে কান দেবেন না।

এসময় এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের (ডিজি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গুর চিকিৎসায় অনিয়মের খবর পেলেই সেখানে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

প্রধানমন্ত্রী সবসময় ডেঙ্গু পরিস্থিতির খোঁজ-খবর নিচ্ছেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় : ১২:৩৪:৪৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ অগাস্ট ২০১৯

৩ আগষ্ট ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্ট :     প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময় ডেঙ্গু পরিস্থিতির খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। তিনি নির্দেশ দিয়েছেন, ডেঙ্গু আক্রান্তরা যেন বিনামূল্য চিকিৎসা পায়। তাছাড়া, এ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ২৪ ঘণ্টা কাজ করছে। ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা যদি বেড়ে যায়, তাদের চিকিৎসার জন্য আরও তিনটি হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে। যেমন- শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউট দেড়শ’ রোগীর জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুর ১টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নতুন ভবনে ভর্তি ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের খোঁজ-খবর নিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু এখন নিয়ন্ত্রণে আছে। ঢামেকে এখন পর্যন্ত এ রোগে ১১ জন মারা গেছে। তবে, তারা ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার আগেই নানা রোগে আক্রান্ত ছিল।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গত তিন দিন পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, আগের চেয়ে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা অনেক কমেছে। ঢামেকে মোট ভর্তি ছিল ২ হাজার ৭শ’ ৯৪ জন। ছাড়পত্র পেয়েছে ২ হাজার ৯০ জন। এখন ভর্তি আছে ৬শ’ ৯৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছে ৫৪ জন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সারাদেশে মোট কত জন ডেঙ্গু রোগী মারা গেছে তা পর্যালোচনা করে পরে জানাবো।

জাহিদ মালেক বলেন, আমাদের চিকিৎসকরা ২৪ ঘণ্টা ডেঙ্গু আক্রান্তদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। ১৩ সদস্যের একটি বিষেশজ্ঞ দল সব জেলায় ছুটে যাচ্ছে ও সেখানকার চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। কোনো বিভ্রান্তিতে কান দেবেন না।

এসময় এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের (ডিজি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গুর চিকিৎসায় অনিয়মের খবর পেলেই সেখানে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।