ঢাকা ১১:৫৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪, ২৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অধ্যাপক মনির আর নেই

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০১:১০:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ অগাস্ট ২০২০ ১৫৮ বার পড়া হয়েছে

৩ আগষ্ট২০২০, আজকের মেঘনা ডটকম, মহসিন ভূইয়া :

কুমিল্লার  মেঘনা উপজেলার মানিকার চর   সরকারি বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের বাংলা বিষয়ের অধ্যাপক মনিরুজ্জামান মনির আর নেই( ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না-ইলাহি রাজিউন) ।  করোনাভাইরাসের কাছে হার মেনে প্রানের কলেজ এবং এই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে গেছেন।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, মনিরুজ্জামান মনির প্রথমে হালকা জ্বর কাঁশিতে ভোগছিলেন, পরে হাল্কা চিকিৎসা করালে তার কোন সুরাহা মিলেনি। পরে সর্দি কাশির সাথে শ্বাসকষ্টও ভাড়ে খুব। পরিবারের কাছে তার অসুস্থের লক্ষন ভাল না লাগায় তার কোভিড-১৯ পরিক্ষা করায় আর তাতে করোনা পজিটিভ আসে। পরে তার শ্বাসকস্ট ধিরে ধিরে বাড়তে থাকায় তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। কিছুদিন চিকিৎসা পর তার চিকিৎসারত ডাক্তাররা তার অবস্থা খারাপ দেখে প্লাজমা থেরাপির কথা বলে। কিন্তু তার সাথে ম্যাচ করে থেরাপির সন্ধান পাওয়া যায়নি।

পরে ডাক্তারের পরামর্শে তার চিকিৎসা চলছিলো কিন্তু অবশেষে করোনাভাইরাসের কাছে হার মেনে সোমবার ৩ আগস্ট সে মৃত্যু বরন করেন।

বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের গনিত বিভাগের অধ্যাপক সায়েদুর রহমান রিপন বাংলার দৃষ্টিকে বলে,  আমি মনির সাহেবের মৃত্যুর খবর কে বিশ্বাস করতে পারতেছিনা। আমরা সহ-পাঠি ছিলাম একজন আরেকজনের সাথে সব শেয়ার করতাম। কলেজ হোস্টেলে এক সাথে থাকা এক সাথে নামাজ পড়া। মনির সাহেব আর আমার খাট পাশাপাশি ছিল রাতে ঘুমানোর আগ-মুহুর্তে আমাদের মাঝে অনেক গল্প হতো। মনির সাহেব খুব খুশি হয়েছিল যেদিন শোনেছে যেদিন শোনেছে আমাদের কলেজ সরকারি হয়েছে। মনির সাহেব একদিন আমায় বলে রিপন সাহেব আজ আমাদের এত গুলো বছরের কষ্ট সফল হয়েছে, বলুন আমরা নির্দিষ্ট সময়ে ক্লাস করানোর জন্য কত রামপুর বাজার হেটে হেসেছি।

অধ্যাপক রিপন আরও বলেন, ‘ সব কিছুতো ঠিকই আছে ঠিকি থাকবে শুধু থাকবে না মনির সাহেব। কি করে ভুলব তার স্মৃতি গুলো। কলেজ ভবনের সমস্ত যায়গায় তার স্মৃতি বেসে আছে। ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে বন্ধুর মত মিশে থাকতেন তিনি। শুধু ছাত্র ছাত্রীদের সাথে নয় সে কলেজের সাথে সম্পৃক্ত সবার সাথে ভাল আচরণ করতেন। কলেজ নিয়ে তার অনেক ভাবনা ছিল।

সূত্র: বাংলার দৃষ্টি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

অধ্যাপক মনির আর নেই

আপডেট সময় : ০১:১০:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ অগাস্ট ২০২০

৩ আগষ্ট২০২০, আজকের মেঘনা ডটকম, মহসিন ভূইয়া :

কুমিল্লার  মেঘনা উপজেলার মানিকার চর   সরকারি বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের বাংলা বিষয়ের অধ্যাপক মনিরুজ্জামান মনির আর নেই( ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না-ইলাহি রাজিউন) ।  করোনাভাইরাসের কাছে হার মেনে প্রানের কলেজ এবং এই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে গেছেন।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, মনিরুজ্জামান মনির প্রথমে হালকা জ্বর কাঁশিতে ভোগছিলেন, পরে হাল্কা চিকিৎসা করালে তার কোন সুরাহা মিলেনি। পরে সর্দি কাশির সাথে শ্বাসকষ্টও ভাড়ে খুব। পরিবারের কাছে তার অসুস্থের লক্ষন ভাল না লাগায় তার কোভিড-১৯ পরিক্ষা করায় আর তাতে করোনা পজিটিভ আসে। পরে তার শ্বাসকস্ট ধিরে ধিরে বাড়তে থাকায় তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। কিছুদিন চিকিৎসা পর তার চিকিৎসারত ডাক্তাররা তার অবস্থা খারাপ দেখে প্লাজমা থেরাপির কথা বলে। কিন্তু তার সাথে ম্যাচ করে থেরাপির সন্ধান পাওয়া যায়নি।

পরে ডাক্তারের পরামর্শে তার চিকিৎসা চলছিলো কিন্তু অবশেষে করোনাভাইরাসের কাছে হার মেনে সোমবার ৩ আগস্ট সে মৃত্যু বরন করেন।

বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের গনিত বিভাগের অধ্যাপক সায়েদুর রহমান রিপন বাংলার দৃষ্টিকে বলে,  আমি মনির সাহেবের মৃত্যুর খবর কে বিশ্বাস করতে পারতেছিনা। আমরা সহ-পাঠি ছিলাম একজন আরেকজনের সাথে সব শেয়ার করতাম। কলেজ হোস্টেলে এক সাথে থাকা এক সাথে নামাজ পড়া। মনির সাহেব আর আমার খাট পাশাপাশি ছিল রাতে ঘুমানোর আগ-মুহুর্তে আমাদের মাঝে অনেক গল্প হতো। মনির সাহেব খুব খুশি হয়েছিল যেদিন শোনেছে যেদিন শোনেছে আমাদের কলেজ সরকারি হয়েছে। মনির সাহেব একদিন আমায় বলে রিপন সাহেব আজ আমাদের এত গুলো বছরের কষ্ট সফল হয়েছে, বলুন আমরা নির্দিষ্ট সময়ে ক্লাস করানোর জন্য কত রামপুর বাজার হেটে হেসেছি।

অধ্যাপক রিপন আরও বলেন, ‘ সব কিছুতো ঠিকই আছে ঠিকি থাকবে শুধু থাকবে না মনির সাহেব। কি করে ভুলব তার স্মৃতি গুলো। কলেজ ভবনের সমস্ত যায়গায় তার স্মৃতি বেসে আছে। ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে বন্ধুর মত মিশে থাকতেন তিনি। শুধু ছাত্র ছাত্রীদের সাথে নয় সে কলেজের সাথে সম্পৃক্ত সবার সাথে ভাল আচরণ করতেন। কলেজ নিয়ে তার অনেক ভাবনা ছিল।

সূত্র: বাংলার দৃষ্টি