ঢাকা ০২:২৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৬:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০ ১৭০ বার পড়া হয়েছে

না ফেরার দেশে চলে গেলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, সাবেক সংসদ সদস‌্য ও ভাষা আন্দোলনের সৈনিক এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এম নূরুল ইসলাম দাদু ভাই।

ব‌ুধবার (২১) অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে খুলনার সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বার্ধক্যজনিত কারণে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান খুলনা মহানগর বিএন‌পির প্রতিষ্ঠাকালীন এ সভাপ‌তি। মৃত‌্যুকালে তার বয়স হয়ে‌ছিলো ৮৬ বছর। মৃত্যুকালে দাদু ভাই ৩ ছেলে ও ১ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মহানগর বিএন‌পির সভাপ‌তি নজরুল ইসলাম মঞ্জু তার মৃত‌্যুর বিষয়টি নি‌শ্চিত করেছেন।

ভাষাসংগ্রামী এম নূরুল ইসলাম (‌দাদু ভাই) ১৯৩৪ সালের ২ মে খুলনা মহানগরীর ২০, বাবুখান রোড এলাকায় সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মরহুম ডা. খাদেম আহমেদ এবং মা আসিয়া খাতুন।

তিনি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পাস করার পর ছাত্রজীবনে নিখিল বাংলা মুসলিম ছাত্রলীগের খুলনা শাখার সাধারণ সম্পাদক, ১৯৫২ সালে হক-ভাসানী-সোহরাওয়ার্দীর যুক্ত ফ্রন্টে, ১৯৫৭ সালে ন্যাপের খুলনা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, ১৯৬২ সালে খুলনার জাহানাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ১৯৬৮-৬৯ এর ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থানে নেতৃত্ব দান। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন পালন করেন। ১৯৭২ সালে ন্যাপের খুলনা মহানগর শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য, ১৯৭৮ সালে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের জাতীয়তাবাদী যুক্তফ্রন্টে যোগদান করেন। ১৯৭৯ সালে খুলনা মহানগর বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, ২০০১ সালে খুলনা-৪ আসন (রূপসা-তেরখাদা-দিঘলিয়া) থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

সর্বশেষ তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি দলমত নির্বিশেষ সবার কাছে ‘দাদু ভাই’ নামে পরিচিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

আপডেট সময় : ০৭:৫৬:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০

না ফেরার দেশে চলে গেলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, সাবেক সংসদ সদস‌্য ও ভাষা আন্দোলনের সৈনিক এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এম নূরুল ইসলাম দাদু ভাই।

ব‌ুধবার (২১) অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে খুলনার সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বার্ধক্যজনিত কারণে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান খুলনা মহানগর বিএন‌পির প্রতিষ্ঠাকালীন এ সভাপ‌তি। মৃত‌্যুকালে তার বয়স হয়ে‌ছিলো ৮৬ বছর। মৃত্যুকালে দাদু ভাই ৩ ছেলে ও ১ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মহানগর বিএন‌পির সভাপ‌তি নজরুল ইসলাম মঞ্জু তার মৃত‌্যুর বিষয়টি নি‌শ্চিত করেছেন।

ভাষাসংগ্রামী এম নূরুল ইসলাম (‌দাদু ভাই) ১৯৩৪ সালের ২ মে খুলনা মহানগরীর ২০, বাবুখান রোড এলাকায় সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মরহুম ডা. খাদেম আহমেদ এবং মা আসিয়া খাতুন।

তিনি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পাস করার পর ছাত্রজীবনে নিখিল বাংলা মুসলিম ছাত্রলীগের খুলনা শাখার সাধারণ সম্পাদক, ১৯৫২ সালে হক-ভাসানী-সোহরাওয়ার্দীর যুক্ত ফ্রন্টে, ১৯৫৭ সালে ন্যাপের খুলনা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, ১৯৬২ সালে খুলনার জাহানাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ১৯৬৮-৬৯ এর ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থানে নেতৃত্ব দান। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন পালন করেন। ১৯৭২ সালে ন্যাপের খুলনা মহানগর শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য, ১৯৭৮ সালে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের জাতীয়তাবাদী যুক্তফ্রন্টে যোগদান করেন। ১৯৭৯ সালে খুলনা মহানগর বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, ২০০১ সালে খুলনা-৪ আসন (রূপসা-তেরখাদা-দিঘলিয়া) থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

সর্বশেষ তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি দলমত নির্বিশেষ সবার কাছে ‘দাদু ভাই’ নামে পরিচিত ছিলেন।