ঢাকা ০৭:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিন মাসের অনুদানের অর্থছাড় পেলেন ইবতেদায়ি শিক্ষকরা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৫:৩০:০৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ ১৩৭ বার পড়া হয়েছে

চলতি বছরের জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট তিন মাসের আর্থিক অনুদানের চেক ছাড় হয়েছে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষকদের।

মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বুধবার (২১ অক্টোবর) এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মাদরাসা অধিদপ্তরের আওতাধীন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষকদের জুলাই থেকে সেপ্টেম্বরের বেতন বাবদ চেক অনুদান বণ্টনকারী নির্ধারিত চারটি চেক ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে। শিক্ষকরা ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত টাকা তুলতে পারবেন।

এতে আরও বলা হয়েছে, অনুদান বণ্টনকারী রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষকদের অনুদানের চেক পাঠানো হয়েছে।

এ দিকে করোনা পরিস্থিতির কারণে গত চার মাস ধরে সরকারি অনুদান পাননি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষকরা। মাসিক প্রধান শিক্ষকদের ৩ হাজার ও সহকারী শিক্ষকদের ২ হাজার ৫০০ টাকা সরকারি অনুদান দেওয়া হয়। গত চার মাস ধরে সে অর্থ না পাওয়ায় শিক্ষকদের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়। বর্তমানে তিন মাসের টাকা একত্রে ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

তিন মাসের অনুদানের অর্থছাড় পেলেন ইবতেদায়ি শিক্ষকরা

আপডেট সময় : ০৫:৩০:০৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০

চলতি বছরের জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট তিন মাসের আর্থিক অনুদানের চেক ছাড় হয়েছে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষকদের।

মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বুধবার (২১ অক্টোবর) এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মাদরাসা অধিদপ্তরের আওতাধীন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষকদের জুলাই থেকে সেপ্টেম্বরের বেতন বাবদ চেক অনুদান বণ্টনকারী নির্ধারিত চারটি চেক ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে। শিক্ষকরা ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত টাকা তুলতে পারবেন।

এতে আরও বলা হয়েছে, অনুদান বণ্টনকারী রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষকদের অনুদানের চেক পাঠানো হয়েছে।

এ দিকে করোনা পরিস্থিতির কারণে গত চার মাস ধরে সরকারি অনুদান পাননি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষকরা। মাসিক প্রধান শিক্ষকদের ৩ হাজার ও সহকারী শিক্ষকদের ২ হাজার ৫০০ টাকা সরকারি অনুদান দেওয়া হয়। গত চার মাস ধরে সে অর্থ না পাওয়ায় শিক্ষকদের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়। বর্তমানে তিন মাসের টাকা একত্রে ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে।