ঢাকা ১২:০৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার ফ্রান্সে গির্জার সামনে যাজককে গুলি

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৪৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১ নভেম্বর ২০২০ ১৫৩ বার পড়া হয়েছে

এবার ফ্রান্সে একটি গির্জার যাজকের উপর হামলা চালাল এক যুবক। ফ্রান্সের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর লিঁওতে এই ঘটনা ঘটেছে। আহত যাজকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। স্কাইনিউজের বরাতে জানা যায় পুলিশ হামলাকারীকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। তবে হামলাকারীর কোন পরিচয় এখনো জানা যায়নি। 

পুলিশসূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সময় বিকেল চারটার দিকে শট গান থেকে দুইবার গুলি করে পালিয়েছে সেই যুবক। আশঙ্কাজনক অবস্থায় সেই যাজক মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন। এর আগে নিস শহরে নটরডেম গির্জার বাইরে তিনজনকে মাথা কেটে করে খুন করেছিল এক যুবক। তার পরই গোটা ফ্রান্সে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছিল কর্তৃপক্ষ।

৩১ অক্টোবর বিকেলে উপাসনা শেষে গির্জা থেকে বের হচ্ছিলেন সেই যাজক। তখনই ঐ যুবক উপর হামলা চালায়। হামলাকারীর খোঁজে গোটা শহরে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো জানিয়েছিলেন, গোটা দেশে যে সব জায়গায় ভিড় বেশি সেখানে সেনা মোতায়েন করা হবে। এমনকী উপাসনালয় ও স্কুলের নিরাপত্তাও সুনিশ্চিত করা হবে। বাস্তবে তেমনটাই হয়েছে। তার পরও কীভাবে এমন হামলা হল, তার উত্তর নেই পুলিশের কাছে। সেই যাজকের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিত্সকরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

এবার ফ্রান্সে গির্জার সামনে যাজককে গুলি

আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৪৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১ নভেম্বর ২০২০

এবার ফ্রান্সে একটি গির্জার যাজকের উপর হামলা চালাল এক যুবক। ফ্রান্সের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর লিঁওতে এই ঘটনা ঘটেছে। আহত যাজকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। স্কাইনিউজের বরাতে জানা যায় পুলিশ হামলাকারীকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। তবে হামলাকারীর কোন পরিচয় এখনো জানা যায়নি। 

পুলিশসূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সময় বিকেল চারটার দিকে শট গান থেকে দুইবার গুলি করে পালিয়েছে সেই যুবক। আশঙ্কাজনক অবস্থায় সেই যাজক মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন। এর আগে নিস শহরে নটরডেম গির্জার বাইরে তিনজনকে মাথা কেটে করে খুন করেছিল এক যুবক। তার পরই গোটা ফ্রান্সে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছিল কর্তৃপক্ষ।

৩১ অক্টোবর বিকেলে উপাসনা শেষে গির্জা থেকে বের হচ্ছিলেন সেই যাজক। তখনই ঐ যুবক উপর হামলা চালায়। হামলাকারীর খোঁজে গোটা শহরে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো জানিয়েছিলেন, গোটা দেশে যে সব জায়গায় ভিড় বেশি সেখানে সেনা মোতায়েন করা হবে। এমনকী উপাসনালয় ও স্কুলের নিরাপত্তাও সুনিশ্চিত করা হবে। বাস্তবে তেমনটাই হয়েছে। তার পরও কীভাবে এমন হামলা হল, তার উত্তর নেই পুলিশের কাছে। সেই যাজকের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিত্সকরা।