ঢাকা ১১:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেশের সবাই করোনার ভ্যাকসিন পাবেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৪:০২:২৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৮ নভেম্বর ২০২০ ১৭৭ বার পড়া হয়েছে

পর্যায়ক্রমে দেশের সব মানুষই ভ্যাকসিন পাবেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।  রোববার (৮ নভেম্বর) সচিবালয়ে তার সঙ্গে বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মুস্তফা ওসমান তুরানের সৌজন্য সাক্ষাতের সময় মন্ত্রী এই তথ‌্য জানান।

বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূত জানতে চাইলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন,‘৫ নভেম্বর ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট ,বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মা ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মধ‌্যে করোনার ভ‌্যাকসিন সংক্রান্ত  ত্রিপক্ষীয় সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী বেক্সিমকো ফার্মার মাধ্যমে বাংলাদেশকে ৩ কোটি ভ্যাক্সিন দেবে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট। বাংলাদেশ সরকার প্রথমে ৩ কোটি ভ্যাক্সিন দিয়ে করোনা প্রতিরোধে কাজ শুরু করবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব মানুষকেই ভ্যাক্সিন দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার।’

 

আলোচনার সময় করোনা ছাড়াও রোহিঙ্গা ইস্যু,কমিউনিটি ক্লিনিক সেবা,দেশের হাসপাতাল কার্যক্রম,হাম-রুবেলার টিকা,করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলানো, উভয় দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

দেশের সবাই করোনার ভ্যাকসিন পাবেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৪:০২:২৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৮ নভেম্বর ২০২০

পর্যায়ক্রমে দেশের সব মানুষই ভ্যাকসিন পাবেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।  রোববার (৮ নভেম্বর) সচিবালয়ে তার সঙ্গে বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মুস্তফা ওসমান তুরানের সৌজন্য সাক্ষাতের সময় মন্ত্রী এই তথ‌্য জানান।

বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূত জানতে চাইলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন,‘৫ নভেম্বর ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট ,বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মা ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মধ‌্যে করোনার ভ‌্যাকসিন সংক্রান্ত  ত্রিপক্ষীয় সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী বেক্সিমকো ফার্মার মাধ্যমে বাংলাদেশকে ৩ কোটি ভ্যাক্সিন দেবে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট। বাংলাদেশ সরকার প্রথমে ৩ কোটি ভ্যাক্সিন দিয়ে করোনা প্রতিরোধে কাজ শুরু করবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব মানুষকেই ভ্যাক্সিন দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার।’

 

আলোচনার সময় করোনা ছাড়াও রোহিঙ্গা ইস্যু,কমিউনিটি ক্লিনিক সেবা,দেশের হাসপাতাল কার্যক্রম,হাম-রুবেলার টিকা,করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলানো, উভয় দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা করা হয়।