ঢাকা ০৬:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১২০ নারীকে নগ্ন ছবি পাঠিয়ে ধরা ৫৪ বছরের বৃদ্ধ!

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৫:৪২:০৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৯ নভেম্বর ২০২০ ১৪৮ বার পড়া হয়েছে

একের পর এক ইচ্ছেমতো ফোন নম্বর ডায়াল করে ফোন। ফোন বাজলেই তা রেখে দেওয়া। পরবর্তীতে সেই নম্বরে একের পর এক নগ্ন ছবি পাঠানো। এভাবে প্রায় ২০০ জনকে নগ্ন ছবি পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে কর্ণাটকের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ওই ২০০ জনের মধ্যে আবার ১২০ জনই মহিলা। শুনতে অবাক লাগলেও এমনই কুকীর্তি করে আপাতত হাজতে অভিযুক্ত ব্যক্তি।

জানা যায়, ওই ব্যক্তির নাম ও রামকৃষ্ণ। ৫৪ বছর বয়সী রামকৃষ্ণ ভারতের কর্ণাটকের চিত্রদুর্গের চাল্লাকেরের বাসিন্দা। দীর্ঘ ছয় মাস ধরেই এই কাজ করছিল সে। স্থানীয় অনেককেই এভাবে ফোনে নগ্ন ছবি পাঠিয়ে হেনস্তা করত। শেষ পর্যন্ত স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্তে নামে পুলিশ। গত শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার করে অভিযুক্তকে। জেরায় নিজের দোষ স্বীকারও করে নিয়েছে রামকৃষ্ণ।
পুলিশ জানিয়েছে, একটি নম্বর থেকে একাধিক নগ্ন ছবি পাওয়ার বেশ কয়েকটি অভিযোগ জমা পড়ে স্থানীয় থানায়। এরপরই নম্বরটি কার জানতে তদন্ত শুরু হয়। কিন্তু ফোনটি সুইচড অফ থাকায় বেশ কিছুদিন তল্লাশি করেও রামকৃষ্ণের হদিস পায়নি পুলিশ। শেষে গত শুক্রবার ফোনটি অন করতেই পুলিশ তার লোকেশন হাতে পেয়ে যায়। এরপরই গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তকে।
পরবর্তীতে জেরায় ওই ব্যক্তি পুরো ঘটনাটি জানান। বলেন, ইচ্ছেমতো নম্বর ডায়াল করতেন। ফোন রিং হলেই রেখে দিতেন। তারপর সেই নম্বরে একের পর এক নগ্ন ছবি পাঠাতেন। চাল্লাকেরেরই অন্তত ৫০ জন মহিলাকে এভাবে নগ্ন ছবি পাঠিয়েছিলেন। লজ্জার খাতিরে প্রথমে অনেকেই অভিযোগ জানাননি। তবে ওই ব্যক্তির গ্রেফতারের খবর পেয়ে অনেকেই আবার সাহস করে এগিয়ে এসে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

১২০ নারীকে নগ্ন ছবি পাঠিয়ে ধরা ৫৪ বছরের বৃদ্ধ!

আপডেট সময় : ০৫:৪২:০৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৯ নভেম্বর ২০২০

একের পর এক ইচ্ছেমতো ফোন নম্বর ডায়াল করে ফোন। ফোন বাজলেই তা রেখে দেওয়া। পরবর্তীতে সেই নম্বরে একের পর এক নগ্ন ছবি পাঠানো। এভাবে প্রায় ২০০ জনকে নগ্ন ছবি পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে কর্ণাটকের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ওই ২০০ জনের মধ্যে আবার ১২০ জনই মহিলা। শুনতে অবাক লাগলেও এমনই কুকীর্তি করে আপাতত হাজতে অভিযুক্ত ব্যক্তি।

জানা যায়, ওই ব্যক্তির নাম ও রামকৃষ্ণ। ৫৪ বছর বয়সী রামকৃষ্ণ ভারতের কর্ণাটকের চিত্রদুর্গের চাল্লাকেরের বাসিন্দা। দীর্ঘ ছয় মাস ধরেই এই কাজ করছিল সে। স্থানীয় অনেককেই এভাবে ফোনে নগ্ন ছবি পাঠিয়ে হেনস্তা করত। শেষ পর্যন্ত স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্তে নামে পুলিশ। গত শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার করে অভিযুক্তকে। জেরায় নিজের দোষ স্বীকারও করে নিয়েছে রামকৃষ্ণ।
পুলিশ জানিয়েছে, একটি নম্বর থেকে একাধিক নগ্ন ছবি পাওয়ার বেশ কয়েকটি অভিযোগ জমা পড়ে স্থানীয় থানায়। এরপরই নম্বরটি কার জানতে তদন্ত শুরু হয়। কিন্তু ফোনটি সুইচড অফ থাকায় বেশ কিছুদিন তল্লাশি করেও রামকৃষ্ণের হদিস পায়নি পুলিশ। শেষে গত শুক্রবার ফোনটি অন করতেই পুলিশ তার লোকেশন হাতে পেয়ে যায়। এরপরই গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তকে।
পরবর্তীতে জেরায় ওই ব্যক্তি পুরো ঘটনাটি জানান। বলেন, ইচ্ছেমতো নম্বর ডায়াল করতেন। ফোন রিং হলেই রেখে দিতেন। তারপর সেই নম্বরে একের পর এক নগ্ন ছবি পাঠাতেন। চাল্লাকেরেরই অন্তত ৫০ জন মহিলাকে এভাবে নগ্ন ছবি পাঠিয়েছিলেন। লজ্জার খাতিরে প্রথমে অনেকেই অভিযোগ জানাননি। তবে ওই ব্যক্তির গ্রেফতারের খবর পেয়ে অনেকেই আবার সাহস করে এগিয়ে এসে অভিযোগ দায়ের করেছেন।