ঢাকা ০২:৫১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাতে ক্লাবে অভিযান, হৃতিকের প্রাক্তন স্ত্রী ও রান্ধওয়া গ্রেপ্তার

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৬:০৫:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২০ ১৩৬ বার পড়া হয়েছে

২২ ডিসেম্বর ২০২০, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

ভারতের মুম্বাইয়ের আন্ধেরিতে অবস্থিত ড্রাগনফ্লাই ক্লাবে সোমবার (২১ ডিসেম্বর) রাতে অভিযান চালিয়ে বলিউড অভিনেতা হৃতিক রোশানের প্রাক্তন স্ত্রী ও মডেল সুজান খান এবং গায়ক গুরু রান্ধওয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, করোনা মহামারির এই সময়ে মহারাষ্ট্র সরকারের রাত্রিকালীন কারফিউ উপেক্ষা করে সেখানে পার্টি চলছিলো। রাত আড়াইটার দিকে এই অভিযান চালিয়ে সুজান খান, গুরু রান্ধওয়াসহ ৩৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশ।

তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮, ২৬৯ ও ৩৪ ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। যদিও পরবর্তী সময়ে এই তারকারা জামিনে ছাড়া পান।

রিপাবলিক টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অভিযানের সময় এই ক্লাবে গায়ক বাদশাও উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু তিনি পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান।

সম্প্রতি করোনা মহামারির কারণে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রাত্রাকলীন কারফিউ জারি করেছে মহারাষ্ট্র সরকার। বড়দিন ও ইংরেজি নতুন বছর সামনে রেখে আগামী ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এই কারফিউ জারি থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

রাতে ক্লাবে অভিযান, হৃতিকের প্রাক্তন স্ত্রী ও রান্ধওয়া গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০৬:০৫:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২০

২২ ডিসেম্বর ২০২০, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

ভারতের মুম্বাইয়ের আন্ধেরিতে অবস্থিত ড্রাগনফ্লাই ক্লাবে সোমবার (২১ ডিসেম্বর) রাতে অভিযান চালিয়ে বলিউড অভিনেতা হৃতিক রোশানের প্রাক্তন স্ত্রী ও মডেল সুজান খান এবং গায়ক গুরু রান্ধওয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, করোনা মহামারির এই সময়ে মহারাষ্ট্র সরকারের রাত্রিকালীন কারফিউ উপেক্ষা করে সেখানে পার্টি চলছিলো। রাত আড়াইটার দিকে এই অভিযান চালিয়ে সুজান খান, গুরু রান্ধওয়াসহ ৩৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশ।

তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮, ২৬৯ ও ৩৪ ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। যদিও পরবর্তী সময়ে এই তারকারা জামিনে ছাড়া পান।

রিপাবলিক টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অভিযানের সময় এই ক্লাবে গায়ক বাদশাও উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু তিনি পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান।

সম্প্রতি করোনা মহামারির কারণে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রাত্রাকলীন কারফিউ জারি করেছে মহারাষ্ট্র সরকার। বড়দিন ও ইংরেজি নতুন বছর সামনে রেখে আগামী ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এই কারফিউ জারি থাকবে।