ঢাকা ০২:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ভাড়াটিয়া গৃহবধূকে ধর্ষণ, বাড়িওয়ালা আটক

যশোর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৯:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ জুন ২০২১ ২০৯ বার পড়া হয়েছে

১০ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, যশোর সংবাদদাতা:

অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে ভাড়াটিয়া গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাড়িওয়ালা বিটু আহম্মেদকে (৪০) আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকালে যশোরের অভয়নগরে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলার মৃত আব্দুল ওহাবের ছেলে বিটু আহম্মেদের বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে ভাড়াটিয়া ছিলেন দুই সন্তানের জননী ওই নারী।

পুলিশ জানায়, কয়েক বছর আগে ধর্ষণের শিকার ওই নারীর স্বামী দুই সন্তান ও তাকে ফেলে আরেকটি বিয়ে করে অন্যত্র চলে যান। এরপর থেকে তিনি সন্তানদের নিয়ে একাই ওই বাড়িতে থাকতেন। বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির মালিক বিটু তার ঘরের দরজা খুলতে বলেন।

দরজা খুললে মাংস কাটার ধারালো চাপাতি দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি জানাজানি করলে বিটু তাকে ও তার দুই কন্যাসন্তানকে হত্যা করবেন বলে হুমকি দেন। সকালে তিনি কৌশলে পালিয়ে অভয়নগর থানায় আসেন এবং বিটু আহম্মেদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেন।

অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল জানান, ধর্ষণের অভিযোগে বিটু আহম্মেদ নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষণ মামলা প্রক্রিয়াধীন। মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ওই নারীকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ভাড়াটিয়া গৃহবধূকে ধর্ষণ, বাড়িওয়ালা আটক

আপডেট সময় : ০৯:৫৯:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ জুন ২০২১

১০ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, যশোর সংবাদদাতা:

অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে ভাড়াটিয়া গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাড়িওয়ালা বিটু আহম্মেদকে (৪০) আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকালে যশোরের অভয়নগরে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলার মৃত আব্দুল ওহাবের ছেলে বিটু আহম্মেদের বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে ভাড়াটিয়া ছিলেন দুই সন্তানের জননী ওই নারী।

পুলিশ জানায়, কয়েক বছর আগে ধর্ষণের শিকার ওই নারীর স্বামী দুই সন্তান ও তাকে ফেলে আরেকটি বিয়ে করে অন্যত্র চলে যান। এরপর থেকে তিনি সন্তানদের নিয়ে একাই ওই বাড়িতে থাকতেন। বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির মালিক বিটু তার ঘরের দরজা খুলতে বলেন।

দরজা খুললে মাংস কাটার ধারালো চাপাতি দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি জানাজানি করলে বিটু তাকে ও তার দুই কন্যাসন্তানকে হত্যা করবেন বলে হুমকি দেন। সকালে তিনি কৌশলে পালিয়ে অভয়নগর থানায় আসেন এবং বিটু আহম্মেদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেন।

অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল জানান, ধর্ষণের অভিযোগে বিটু আহম্মেদ নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষণ মামলা প্রক্রিয়াধীন। মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ওই নারীকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।