ঢাকা ০২:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকায় রেস্টুরেন্টে ২০০ মরা মুরগিসহ আটক ৭

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ১২:২২:১৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৩ জুন ২০২১ ১৮৩ বার পড়া হয়েছে

১২ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ‘এয়ারপোর্ট রেস্টুরেন্ট’ থেকে ২০০টি মরা মুরগি জবাই করে রান্নার প্রস্তুতি নেওয়ার সময় ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (১২ জুন) বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) সদস্যরা অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।

অভিযানের নেতৃত্ব দেন বিমানবন্দরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলী আফরোজ। আটকৃতদের মধ্যে ওই রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার রবিউল রয়েছেন।

বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মোহাম্মদ জিয়াউল হক বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদেরকে বিমানবন্দর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়।

অভিযান সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বিমানবন্দর এয়ারপোর্ট রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ গোপনে মরা মুরগিসহ নিম্নমানের খাবার বিক্রি করে আসছিল। এ ছাড়া উচ্চ মুল্যে খাবার বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে ওই রেস্টুরেন্ট কর্মচারীদের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ উঠেছে, দীর্ঘ দিন ধরে গোপনে মরা মুরগি জবাই দিয়ে বিমান যাত্রী, স্বজন ও বিমানবন্দরে কর্মরত সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন কর্মচারীদের কাছে বিক্রি করে আসছিলেন রেস্টুরেন্ট কর্মচারীরা। এতোদিন গোপন থাকলেও শনিবার বিমানবন্দর এপিবিএন পুলিশের নজরে ধরা পড়ে বলে সংশ্নিষ্টরা জানান।

বিমানবন্দর এপিবিএন পুলিশ জানায়, বিমানবন্দর এলাকায় মানুষের খাবারের একমাত্র রেস্টুরেন্ট হচ্ছে এয়ারপোর্ট রেস্টুরেন্ট। এখানে দেশি-বিদেশি বিমান যাত্রী, স্বজন ও সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা খাওয়া-দাওয়া করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

ঢাকায় রেস্টুরেন্টে ২০০ মরা মুরগিসহ আটক ৭

আপডেট সময় : ১২:২২:১৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৩ জুন ২০২১

১২ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ‘এয়ারপোর্ট রেস্টুরেন্ট’ থেকে ২০০টি মরা মুরগি জবাই করে রান্নার প্রস্তুতি নেওয়ার সময় ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (১২ জুন) বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) সদস্যরা অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।

অভিযানের নেতৃত্ব দেন বিমানবন্দরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলী আফরোজ। আটকৃতদের মধ্যে ওই রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার রবিউল রয়েছেন।

বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মোহাম্মদ জিয়াউল হক বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদেরকে বিমানবন্দর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়।

অভিযান সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বিমানবন্দর এয়ারপোর্ট রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ গোপনে মরা মুরগিসহ নিম্নমানের খাবার বিক্রি করে আসছিল। এ ছাড়া উচ্চ মুল্যে খাবার বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে ওই রেস্টুরেন্ট কর্মচারীদের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ উঠেছে, দীর্ঘ দিন ধরে গোপনে মরা মুরগি জবাই দিয়ে বিমান যাত্রী, স্বজন ও বিমানবন্দরে কর্মরত সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন কর্মচারীদের কাছে বিক্রি করে আসছিলেন রেস্টুরেন্ট কর্মচারীরা। এতোদিন গোপন থাকলেও শনিবার বিমানবন্দর এপিবিএন পুলিশের নজরে ধরা পড়ে বলে সংশ্নিষ্টরা জানান।

বিমানবন্দর এপিবিএন পুলিশ জানায়, বিমানবন্দর এলাকায় মানুষের খাবারের একমাত্র রেস্টুরেন্ট হচ্ছে এয়ারপোর্ট রেস্টুরেন্ট। এখানে দেশি-বিদেশি বিমান যাত্রী, স্বজন ও সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা খাওয়া-দাওয়া করেন।