ঢাকা ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৫ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ১১:৫০:০৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১ ১৭১ বার পড়া হয়েছে

১৫ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

মুমূর্ষু এক রোগীকে ফিরিয়ে দিল ৫টি হাসপাতাল। টানা ১৮ ঘণ্টা মরণাপন্ন রোগীকে নিয়ে হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ছুটল পরিবার। শেষে মৃত্যু হলো তার। সোমবার সকালে এমন ঘটেছে কলকাতায়।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, ভারতের এই শহরে রোববার ফুটপাতে ফলের রস বিক্রি করার সময় মাথা ঘুরে পড়ে যান পার্ক স্ট্রিটের বাসিন্দা রামনারায়ণ শাহ। বয়স ৬০ বছর। তার ব্রেন স্ট্রোক হয়। এরপরই পরিবারের সদস্যরা তাকে নিয়ে এসএসকেএম হাসপাতালের জরুরি বিভাগে যান।

সেখানে তাদের বলা হয়, হাসপাতালে কোনো বেড খালি নেই। তাই তাকে এরপর শিয়ালদহের এনআরএস হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখানেও বেড ছিল না বলে অভিযোগ। তাই তাকে রেফার করা হয় পার্ক সার্কাস চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

এই হাসপাতালে আবার ব্রেনের চিকিৎসার ব্যবস্থা নেই বলে জানান চিকিৎসকেরা। ফলে ফের রেফার করা হয় ওই রোগীকে। এরপর পরিবারের সদস্যরা মল্লিক বাজার ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে চিকিৎসায় খরচ প্রচুর। তাই সেখান থেকে রোগীকে নিয়ে বাঙ্গুর ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্সে যান তারা।

তার স্বজনরা অভিযোগ করেছেন, সেখান থেকে একপ্ৰকার গলাধাক্কা দিয়ে পুলিশ বের করে দেয় তাদের। এরপর আবার সেই এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় রোগীকে।

তার পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, সেখানে জরুরি বিভাগে রোগীকে ফেলে রাখা হয়। সেই সময় তাকে অক্সিজেনও দেয়া হয়নি। শেষে বেলা ১২টা নাগাদ তার মৃত্যু হয়।

এ প্রসঙ্গে এসএসকেএম হাসপাতালের সুপার পীযূষ রায় জানিয়েছেন, ‘এমনটা হওয়া উচিত হয়নি। তবে একটাও বেড খালি না থাকলে রোগী ভর্তি নেয়া তো সম্ভব নয়।’

এনআরএস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, তারা খোঁজ নিচ্ছে গোটা বিষয়টির।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

৫ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

আপডেট সময় : ১১:৫০:০৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১

১৫ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

মুমূর্ষু এক রোগীকে ফিরিয়ে দিল ৫টি হাসপাতাল। টানা ১৮ ঘণ্টা মরণাপন্ন রোগীকে নিয়ে হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ছুটল পরিবার। শেষে মৃত্যু হলো তার। সোমবার সকালে এমন ঘটেছে কলকাতায়।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, ভারতের এই শহরে রোববার ফুটপাতে ফলের রস বিক্রি করার সময় মাথা ঘুরে পড়ে যান পার্ক স্ট্রিটের বাসিন্দা রামনারায়ণ শাহ। বয়স ৬০ বছর। তার ব্রেন স্ট্রোক হয়। এরপরই পরিবারের সদস্যরা তাকে নিয়ে এসএসকেএম হাসপাতালের জরুরি বিভাগে যান।

সেখানে তাদের বলা হয়, হাসপাতালে কোনো বেড খালি নেই। তাই তাকে এরপর শিয়ালদহের এনআরএস হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখানেও বেড ছিল না বলে অভিযোগ। তাই তাকে রেফার করা হয় পার্ক সার্কাস চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

এই হাসপাতালে আবার ব্রেনের চিকিৎসার ব্যবস্থা নেই বলে জানান চিকিৎসকেরা। ফলে ফের রেফার করা হয় ওই রোগীকে। এরপর পরিবারের সদস্যরা মল্লিক বাজার ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে চিকিৎসায় খরচ প্রচুর। তাই সেখান থেকে রোগীকে নিয়ে বাঙ্গুর ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্সে যান তারা।

তার স্বজনরা অভিযোগ করেছেন, সেখান থেকে একপ্ৰকার গলাধাক্কা দিয়ে পুলিশ বের করে দেয় তাদের। এরপর আবার সেই এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় রোগীকে।

তার পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, সেখানে জরুরি বিভাগে রোগীকে ফেলে রাখা হয়। সেই সময় তাকে অক্সিজেনও দেয়া হয়নি। শেষে বেলা ১২টা নাগাদ তার মৃত্যু হয়।

এ প্রসঙ্গে এসএসকেএম হাসপাতালের সুপার পীযূষ রায় জানিয়েছেন, ‘এমনটা হওয়া উচিত হয়নি। তবে একটাও বেড খালি না থাকলে রোগী ভর্তি নেয়া তো সম্ভব নয়।’

এনআরএস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, তারা খোঁজ নিচ্ছে গোটা বিষয়টির।