ঢাকা ০৩:৫৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফতুল্লায় বিদ্যালয়ের মাঠে মিললো নিখোঁজ যুবকের মরদেহ

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ১০:৫০:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ জুন ২০২১ ১৪৭ বার পড়া হয়েছে

২০ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা হাজীগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে হৃদয় (২৫) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনা সেকান্দর নামে তার বন্ধুকে আটক করা হয়।

রোববার (২০ জুন) দুপুরে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

হৃদয় ফতুল্লার হাজীগঞ্জ উচাবাড়ির খোকন মিয়ার ছেলে। তিনি ইলেকট্রিক মিস্ত্রির কাজ করতেন।

নিহতের বড় ভাই মো. রনি বলেন, শনিবার (১৯ জুন) রাত ১২টার দিকে হৃদয়ের বন্ধু পারভেজ, মাহাবুব, সেকান্দরসহ আরো কয়েকজন বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে সে আর বাসায় ফেরেননি। পরে রোববার দুপুরে স্কুলের মাঠে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়।

তিনি বলেন, যারা রাতে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গেছে তারাই পরিকল্পিতভাবে হৃদয়কে হত্যা করেছে।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিবুজ্জামান বলেন, নিহতের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এটা হত্যাকাণ্ড নাকি অন্য কিছু ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার জানা যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

ফতুল্লায় বিদ্যালয়ের মাঠে মিললো নিখোঁজ যুবকের মরদেহ

আপডেট সময় : ১০:৫০:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ জুন ২০২১

২০ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা হাজীগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে হৃদয় (২৫) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনা সেকান্দর নামে তার বন্ধুকে আটক করা হয়।

রোববার (২০ জুন) দুপুরে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

হৃদয় ফতুল্লার হাজীগঞ্জ উচাবাড়ির খোকন মিয়ার ছেলে। তিনি ইলেকট্রিক মিস্ত্রির কাজ করতেন।

নিহতের বড় ভাই মো. রনি বলেন, শনিবার (১৯ জুন) রাত ১২টার দিকে হৃদয়ের বন্ধু পারভেজ, মাহাবুব, সেকান্দরসহ আরো কয়েকজন বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে সে আর বাসায় ফেরেননি। পরে রোববার দুপুরে স্কুলের মাঠে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়।

তিনি বলেন, যারা রাতে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গেছে তারাই পরিকল্পিতভাবে হৃদয়কে হত্যা করেছে।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিবুজ্জামান বলেন, নিহতের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এটা হত্যাকাণ্ড নাকি অন্য কিছু ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার জানা যাবে।