ঢাকা ০৩:৫৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আ.লীগ সভাপতির গাড়িতে যুবলীগের হামলা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৭:৫০:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ জুন ২০২১ ১৬৮ বার পড়া হয়েছে

২১ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকুর গাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়েছে। কমলনগরের তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী ফয়সল আহমেদ রতনের নেতৃত্বে যুবলীগের নেতাকর্মীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। অন্যদিক এ কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে সিল মারা অবস্থায় ব্যালট পেপার পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় কেন্দ্রে ধাওয়া পালটা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার (২১ জুন) দুপুরে ইউনিয়নের উত্তর চরপাগলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে একই ইউনিয়নে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মনিরুজ্জামান পাটওয়ারীর মোটরসাইকে ভাঙচুর করার খবর পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শুরু থেকেই আওয়ামী লীগ নেতা পিংকু তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী মির্জা আশরাফুল জামাল রাসেলের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন। রাসেলের প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান রতন (ঘোড়া)। সোমবার সকাল ৮ টা থেকে তোরাবগঞ্জসহ কমলনগর-রামগতি উপজেলার ৬ ইউনিয়ন ও লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর ও সদরের একাংশ) আসনের ভোট গ্রহণ চলছে।

এদিকে নির্বাচনী কেন্দ্রের পরিস্থিতি পরিদর্শনে আওয়ামী লীগ নেতা পিংকু দুপুরে তোরাবগঞ্জে আসেন। এ সময় ঘটনাস্থলে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে রতনসহ যুবলীগের নেতাকর্মীরা তার গাড়িতে হামলা চালায়। এক পর্যায় ইটপাটকেল মেরে পিংকুর গাড়ির সামনের ও পাশের কাঁচ ভেঙে ফেলে।

তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফয়সল আহমেদ রতন বলেন, সাংবাদিক আব্বাস আমার সঙ্গে সকাল থেকে ছিল। ঘটনার সময় আব্বাসসহ আমি অন্য একটি কেন্দ্রে ছিলাম। কে গাড়ি ভাঙচুর করেছে, আমি জানি না। আমি এখন আত্মগোপনে আছি।

প্রসঙ্গত, রতন গেলো ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। গত উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিপক্ষে গিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী কমলনগর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পীর পক্ষে কাজ করেছেন। এতে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নের ব্যাপারে তার জন্য সুপারিশ করা হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

আ.লীগ সভাপতির গাড়িতে যুবলীগের হামলা

আপডেট সময় : ০৭:৫০:৫০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ জুন ২০২১

২১ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকুর গাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়েছে। কমলনগরের তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী ফয়সল আহমেদ রতনের নেতৃত্বে যুবলীগের নেতাকর্মীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। অন্যদিক এ কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে সিল মারা অবস্থায় ব্যালট পেপার পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় কেন্দ্রে ধাওয়া পালটা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার (২১ জুন) দুপুরে ইউনিয়নের উত্তর চরপাগলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে একই ইউনিয়নে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মনিরুজ্জামান পাটওয়ারীর মোটরসাইকে ভাঙচুর করার খবর পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শুরু থেকেই আওয়ামী লীগ নেতা পিংকু তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী মির্জা আশরাফুল জামাল রাসেলের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন। রাসেলের প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান রতন (ঘোড়া)। সোমবার সকাল ৮ টা থেকে তোরাবগঞ্জসহ কমলনগর-রামগতি উপজেলার ৬ ইউনিয়ন ও লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর ও সদরের একাংশ) আসনের ভোট গ্রহণ চলছে।

এদিকে নির্বাচনী কেন্দ্রের পরিস্থিতি পরিদর্শনে আওয়ামী লীগ নেতা পিংকু দুপুরে তোরাবগঞ্জে আসেন। এ সময় ঘটনাস্থলে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে রতনসহ যুবলীগের নেতাকর্মীরা তার গাড়িতে হামলা চালায়। এক পর্যায় ইটপাটকেল মেরে পিংকুর গাড়ির সামনের ও পাশের কাঁচ ভেঙে ফেলে।

তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ফয়সল আহমেদ রতন বলেন, সাংবাদিক আব্বাস আমার সঙ্গে সকাল থেকে ছিল। ঘটনার সময় আব্বাসসহ আমি অন্য একটি কেন্দ্রে ছিলাম। কে গাড়ি ভাঙচুর করেছে, আমি জানি না। আমি এখন আত্মগোপনে আছি।

প্রসঙ্গত, রতন গেলো ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। গত উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিপক্ষে গিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী কমলনগর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পীর পক্ষে কাজ করেছেন। এতে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নের ব্যাপারে তার জন্য সুপারিশ করা হয়নি।