ঢাকা ১২:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যখনই দলে এসেছি প্রমাণ করেছি, আমি খেলতে সক্ষম: ডি মারিয়া

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৯:৩৫:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১ ১৪৯ বার পড়া হয়েছে

২২ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

আলেসান্দ্রো গোমেজের একমাত্র গোলে ১-০ ব্যবধানে প্যারাগুয়েকে হারিয়ে কোপা আমেরিকার শেষ আট নিশ্চিত করেছে ১৪ বারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।

এদিন শুরুর একাদশে ছিলেন ডি মারিয়া। আক্রমণের পাশাপাশি রক্ষণভাগও সামলেছেন।

ম্যাচ শেষে ৩৩ বছর বয়সী ডি মারিয়া বলেন, সবাই খেলতে চায় এবং শুরুর একাদশে থাকতে চায়। দলে থাকাটা সব সময় আনন্দের। প্রতিটি অনুশীলন সেশনে আমি আমার সর্বোচ্চটা উজার করে দেই। আমি প্রমাণ করার চেষ্টা করি যে, দলের জন্য শতভাগ দেই। চিলির বিপক্ষে শুরুর একাদশে থাকার সুযোগ হয়েছিলো। এরপর বেঞ্চে ছিলাম। যখনই দলে এসেছি তখনই আমি প্রমাণ করেছি, আমি খেলতে সক্ষম। আজ আমাকে সুযোগ দিয়েছে এবং আবার আমি এটা প্রমাণ করেছি।

তিনি বলেন, দলের ২৮ জন খেলোয়াড়েরই খেলার সম্ভাবনা থাকে। যারা দলে আছে তারা যৌক্তিক কারণেই আছে। এটা যে বুঝবে তাকে সেরাটা দিতেই হবে। এবং আমি সেটা দেই। যদি না পারি, বাইরে থেকে দলকে সমর্থন দেব।জয়ের মানসিকতা নিয়েই আমরা ম্যাচটা শুরু করি, যা গুরুত্বপূর্ণ এবং এরপর আমরা এভাবে চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। আমাদের বেশ কিছু গোল করার সুযোগ ছিলো, পারিনি। খেলোয়াড়রা ছিলো খুবই ক্লান্ত। এটা মাঠেই দেখা গেছে এবং এটা সহজ ছিলো না।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

যখনই দলে এসেছি প্রমাণ করেছি, আমি খেলতে সক্ষম: ডি মারিয়া

আপডেট সময় : ০৯:৩৫:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১

২২ জুন ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

আলেসান্দ্রো গোমেজের একমাত্র গোলে ১-০ ব্যবধানে প্যারাগুয়েকে হারিয়ে কোপা আমেরিকার শেষ আট নিশ্চিত করেছে ১৪ বারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।

এদিন শুরুর একাদশে ছিলেন ডি মারিয়া। আক্রমণের পাশাপাশি রক্ষণভাগও সামলেছেন।

ম্যাচ শেষে ৩৩ বছর বয়সী ডি মারিয়া বলেন, সবাই খেলতে চায় এবং শুরুর একাদশে থাকতে চায়। দলে থাকাটা সব সময় আনন্দের। প্রতিটি অনুশীলন সেশনে আমি আমার সর্বোচ্চটা উজার করে দেই। আমি প্রমাণ করার চেষ্টা করি যে, দলের জন্য শতভাগ দেই। চিলির বিপক্ষে শুরুর একাদশে থাকার সুযোগ হয়েছিলো। এরপর বেঞ্চে ছিলাম। যখনই দলে এসেছি তখনই আমি প্রমাণ করেছি, আমি খেলতে সক্ষম। আজ আমাকে সুযোগ দিয়েছে এবং আবার আমি এটা প্রমাণ করেছি।

তিনি বলেন, দলের ২৮ জন খেলোয়াড়েরই খেলার সম্ভাবনা থাকে। যারা দলে আছে তারা যৌক্তিক কারণেই আছে। এটা যে বুঝবে তাকে সেরাটা দিতেই হবে। এবং আমি সেটা দেই। যদি না পারি, বাইরে থেকে দলকে সমর্থন দেব।জয়ের মানসিকতা নিয়েই আমরা ম্যাচটা শুরু করি, যা গুরুত্বপূর্ণ এবং এরপর আমরা এভাবে চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। আমাদের বেশ কিছু গোল করার সুযোগ ছিলো, পারিনি। খেলোয়াড়রা ছিলো খুবই ক্লান্ত। এটা মাঠেই দেখা গেছে এবং এটা সহজ ছিলো না।