ঢাকা ০২:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লম্বা সময় বিশ্রামে থাকতে হতে পারে তামিমকে

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৮:৩৫:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ জুলাই ২০২১ ১৭৯ বার পড়া হয়েছে

০৭ জুলাই ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সেরে ওঠতে না পারায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের একাদশে নেই তামিম ইকবাল। তবে ব্যথা কমলে ওয়ানডে সিরিজে খেলতে দেখা যেতে পারে তাঁকে। যদিও টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাঁহাতি এই ওপেনারের খেলাটা প্রায় অনিশ্চিত। মূলত, অধিনায়ক ও দলের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার হওয়ায় কিছুটা ঝুঁকি নিয়ে ওয়ানডে সিরিজে তাঁকে খেলাতে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে ওয়ানডে সিরিজ শেষেই লম্বা সময়ের বিশ্রাম দেয়া হতে পারে তামিমকে। এমনই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ক্রিকবাজ।

শ্রীলঙ্কা সফরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হাঁটুর চোটে পড়েছিলেন তামিম। সেই ইনজুরি নিয়েই ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলেছেন তিনি। এরপর বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও (ডিপিএল) খেলেছেন ১২ ম্যাচ। গ্রুপ পর্বের শেষ দিকে এসে হাঁটুর ব্যথা বেড়ে গেলে ডিপিএলের সুপার লিগ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন অভিজ্ঞ এই ওপেনার। বিশ্রামে থাকলেও এখনও হাঁটুর চোট থেকে সেরে ওঠতে পারেননি তিনি। যেকারণে টেস্ট সিরিজে নেই তিনি।

হাঁটুর ইনজুরি নিয়ে ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়ার সার্জন ডেভিড ইয়ংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তামিম। যেখানে ইয়ং তামিমকে লম্বা সময় বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছে বলে দাবি করেছে ক্রিকবাজ। তেমনটা হলে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরি থেকেও ছিটকে যেতে পারেন তিনি।

যদিও সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে খেলতে পারবেন বলে আশা করা হচ্ছে। এদিকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলা না খেলা নিয়ে তামিম বলেন, ‘সেরে ওঠতে খানিকটা সময় লাগবে। এই সিরিজে আমি কিভাবে ব্যথা মানিয়ে নেই এটি (টি-টোয়েন্টি বাদ দেয়া) সেটার ওপর নির্ভর করবে।‘

টিম ম্যানেজমেন্টের দেয়া তথ্য মতে টিয়ার-১ ইনজুরিতে ভুগছেন তামিম। যদিও সেটি থেকে সেরে ওঠতে অস্ত্রোপচার করাতে হবে না তাঁর। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরি জানিয়েছেন, ‘তামিমের আঘাতের জন্য অস্ত্রোপচারের দরকার নেই। কিছুদিন বিশ্রাম নিলেই আশা করি সে সুস্থ হয়ে ওঠবে। সবকিছুই তার ব্যথা কমার ওপর নির্ভর করবে। বিশ্রামই এটির চিকিৎসা। তবে সে যদি ব্যথা নিয়ে খেলতে থাকে এবং ইনজুরির মাত্রা বাড়ে তাহলে অস্ত্রোপচার করাতে হতে পারে। সেক্ষেত্রে সে লম্বা সময়ের জন্য বাইরে ছিটকে যেতে পারে। আমাদের নিশ্চিত হতে হবে যে, সে পুরোপুরি সেরে ওঠেছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

লম্বা সময় বিশ্রামে থাকতে হতে পারে তামিমকে

আপডেট সময় : ০৮:৩৫:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ জুলাই ২০২১

০৭ জুলাই ২০২১, আজকের মেঘনা. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সেরে ওঠতে না পারায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের একাদশে নেই তামিম ইকবাল। তবে ব্যথা কমলে ওয়ানডে সিরিজে খেলতে দেখা যেতে পারে তাঁকে। যদিও টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাঁহাতি এই ওপেনারের খেলাটা প্রায় অনিশ্চিত। মূলত, অধিনায়ক ও দলের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার হওয়ায় কিছুটা ঝুঁকি নিয়ে ওয়ানডে সিরিজে তাঁকে খেলাতে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে ওয়ানডে সিরিজ শেষেই লম্বা সময়ের বিশ্রাম দেয়া হতে পারে তামিমকে। এমনই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ক্রিকবাজ।

শ্রীলঙ্কা সফরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হাঁটুর চোটে পড়েছিলেন তামিম। সেই ইনজুরি নিয়েই ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলেছেন তিনি। এরপর বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও (ডিপিএল) খেলেছেন ১২ ম্যাচ। গ্রুপ পর্বের শেষ দিকে এসে হাঁটুর ব্যথা বেড়ে গেলে ডিপিএলের সুপার লিগ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন অভিজ্ঞ এই ওপেনার। বিশ্রামে থাকলেও এখনও হাঁটুর চোট থেকে সেরে ওঠতে পারেননি তিনি। যেকারণে টেস্ট সিরিজে নেই তিনি।

হাঁটুর ইনজুরি নিয়ে ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়ার সার্জন ডেভিড ইয়ংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তামিম। যেখানে ইয়ং তামিমকে লম্বা সময় বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছে বলে দাবি করেছে ক্রিকবাজ। তেমনটা হলে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরি থেকেও ছিটকে যেতে পারেন তিনি।

যদিও সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে খেলতে পারবেন বলে আশা করা হচ্ছে। এদিকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলা না খেলা নিয়ে তামিম বলেন, ‘সেরে ওঠতে খানিকটা সময় লাগবে। এই সিরিজে আমি কিভাবে ব্যথা মানিয়ে নেই এটি (টি-টোয়েন্টি বাদ দেয়া) সেটার ওপর নির্ভর করবে।‘

টিম ম্যানেজমেন্টের দেয়া তথ্য মতে টিয়ার-১ ইনজুরিতে ভুগছেন তামিম। যদিও সেটি থেকে সেরে ওঠতে অস্ত্রোপচার করাতে হবে না তাঁর। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরি জানিয়েছেন, ‘তামিমের আঘাতের জন্য অস্ত্রোপচারের দরকার নেই। কিছুদিন বিশ্রাম নিলেই আশা করি সে সুস্থ হয়ে ওঠবে। সবকিছুই তার ব্যথা কমার ওপর নির্ভর করবে। বিশ্রামই এটির চিকিৎসা। তবে সে যদি ব্যথা নিয়ে খেলতে থাকে এবং ইনজুরির মাত্রা বাড়ে তাহলে অস্ত্রোপচার করাতে হতে পারে। সেক্ষেত্রে সে লম্বা সময়ের জন্য বাইরে ছিটকে যেতে পারে। আমাদের নিশ্চিত হতে হবে যে, সে পুরোপুরি সেরে ওঠেছে।’