ঢাকা ০৭:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে অভিমান করে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ১১:৫২:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ মার্চ ২০২২ ২৬০ বার পড়া হয়েছে

কুমিল্লার মুরাদনগরে বাবার সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ফারিয়া তাসরিম রিমা নামের এক স্কুল ছাত্রী। সে মুরাদনগর নুরুন্নাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী ও রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের মাহুতিকান্দা গ্রামের হাসান আজিজুল হকের মেয়ে। সোমবার বিকালে উপজেলা সদরের মাষ্টার পাড়ার ভাড়া বাসার নিজ কক্ষে ওই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রিমার ব্যবহৃত মোবাইল নিয়ে সহপাঠিদের সাথে বেশ কয়েকদিন যাবত ঝামেলা চলে আসছিলো। এ খবর সোমবার দুপুরে রিমার বাবা হাসান আজিজুলের কানে যায়। বাবা এ ঘটনা শুনে ফেলায় বাসায় এসে বাবার শাসনের ভয়ে নিজ কক্ষে দরজা লাগিয়ে ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।

বাবা হাসান আজিজুল বাসায় ফিরে মেয়েকে খুজতে গিয়ে দেখে তার কক্ষে দরজা বন্ধ। অনেক ডাকা ডাকি করে সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙ্গে ভিতরে গিয়ে দেখেন মেয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে আছে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ মুরাদনগর থানায় নিয়ে আসে।

মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসিম বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি অভিমান করেই সে ফাঁস দিয়েছে। মঙ্গলবার সকালে লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতালে পাঠানো হবে।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

মুরাদনগরে অভিমান করে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ১১:৫২:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ মার্চ ২০২২

কুমিল্লার মুরাদনগরে বাবার সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ফারিয়া তাসরিম রিমা নামের এক স্কুল ছাত্রী। সে মুরাদনগর নুরুন্নাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী ও রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউনিয়নের মাহুতিকান্দা গ্রামের হাসান আজিজুল হকের মেয়ে। সোমবার বিকালে উপজেলা সদরের মাষ্টার পাড়ার ভাড়া বাসার নিজ কক্ষে ওই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রিমার ব্যবহৃত মোবাইল নিয়ে সহপাঠিদের সাথে বেশ কয়েকদিন যাবত ঝামেলা চলে আসছিলো। এ খবর সোমবার দুপুরে রিমার বাবা হাসান আজিজুলের কানে যায়। বাবা এ ঘটনা শুনে ফেলায় বাসায় এসে বাবার শাসনের ভয়ে নিজ কক্ষে দরজা লাগিয়ে ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।

বাবা হাসান আজিজুল বাসায় ফিরে মেয়েকে খুজতে গিয়ে দেখে তার কক্ষে দরজা বন্ধ। অনেক ডাকা ডাকি করে সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙ্গে ভিতরে গিয়ে দেখেন মেয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে আছে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ মুরাদনগর থানায় নিয়ে আসে।

মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসিম বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছি অভিমান করেই সে ফাঁস দিয়েছে। মঙ্গলবার সকালে লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতালে পাঠানো হবে।