ঢাকা ০৪:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শান্তিরক্ষা মিশনে লেবাননের পথে নৌবাহিনীর ৭৫ সদস্য

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৮:২৮:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ অক্টোবর ২০২২ ১১৩ বার পড়া হয়েছে

১২ অক্টোবর ২০২২ইং, আজকের মেঘনা ডটকম,

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

লেবাননে নিয়োজিত জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন শন ইউনাইটেড নেশন্স ইন্টারিম ফোর্স ইন লেবাননে (ইউনিফিল) অংশ নিতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ৭৫ জন সদস্যের একটি দল বুধবার চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেছে।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

আইএসপিআর জানায়, নৌসদস্যরা বাংলাদেশ নৌবাহিনী কন্টিনজেন্ট ‘ব্যানকন-১৩’ এর আওতায় লেবাননে মোতায়েন নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’ এ যোগদান করবেন। চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলের চিফ স্টাফ অফিসার ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ ফয়জুল হক লেবাননগামী নৌসদস্যদের আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানান। এর আগে গত ২ অক্টোবর ৩৫ জন নৌসদস্যের একটি অগ্রগামী দল ইউনিফিলে যোগদান করে।

আইএসপিআর আরও জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ২০১০ সাল থেকে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ লেবাননে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণ করে আসছে। লেবাননের ভূ-মধ্যসাগরে মাল্টিন্যাশনাল মেরিটাইম টাস্কফোর্সের সদস্য হিসেবে উপমহাদেশের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় নিয়োজিত রয়েছে। বর্তমানে নিয়োজিত নৌবাহিনী যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’ লেবাননের ভূ-খণ্ডে অবৈধ অস্ত্র এবং গোলাবারুদ অনুপ্রবেশ প্রতিহত করতে দক্ষতার সাথে কাজ করে চলেছে।

পাশাপাশি ওই জাহাজ লেবানিজ জলসীমায় মেরিটাইম ইন্টারডিকশন অপারেশন পরিচালনা, সন্দেহজনক জাহাজ ও এয়ার ক্রাফটের উপর নজরদারী, দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজে উদ্ধার তৎপরতা এবং লেবাননের সামরিক সদস্যদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ প্রদানসহ লেবাননে বসবাসরত বাংলাদেশীদের নিয়মিত চিকিৎসা প্রদান করে যাচ্ছে।

 

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে লেবাননে মোতায়েনের পর থেকে এ পর্যন্ত ২ হাজার ৬৮৮ জন নৌ সদস্য সফলতার সাথে ওই মিশন সম্পন্ন করেছেন। লেবাননে বাংলাদেশের নৌসদস্যরা অত্যন্ত আন্তরিকতা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সাথে তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর গর্বিত এই অংশগ্রহণ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে দেশের ভাবমূর্তি ও সুনাম বৃদ্ধি করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

শান্তিরক্ষা মিশনে লেবাননের পথে নৌবাহিনীর ৭৫ সদস্য

আপডেট সময় : ০৮:২৮:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ অক্টোবর ২০২২

১২ অক্টোবর ২০২২ইং, আজকের মেঘনা ডটকম,

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

লেবাননে নিয়োজিত জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন শন ইউনাইটেড নেশন্স ইন্টারিম ফোর্স ইন লেবাননে (ইউনিফিল) অংশ নিতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ৭৫ জন সদস্যের একটি দল বুধবার চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেছে।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

আইএসপিআর জানায়, নৌসদস্যরা বাংলাদেশ নৌবাহিনী কন্টিনজেন্ট ‘ব্যানকন-১৩’ এর আওতায় লেবাননে মোতায়েন নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’ এ যোগদান করবেন। চট্টগ্রাম নৌ অঞ্চলের চিফ স্টাফ অফিসার ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ ফয়জুল হক লেবাননগামী নৌসদস্যদের আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানান। এর আগে গত ২ অক্টোবর ৩৫ জন নৌসদস্যের একটি অগ্রগামী দল ইউনিফিলে যোগদান করে।

আইএসপিআর আরও জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ২০১০ সাল থেকে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ লেবাননে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণ করে আসছে। লেবাননের ভূ-মধ্যসাগরে মাল্টিন্যাশনাল মেরিটাইম টাস্কফোর্সের সদস্য হিসেবে উপমহাদেশের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় নিয়োজিত রয়েছে। বর্তমানে নিয়োজিত নৌবাহিনী যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’ লেবাননের ভূ-খণ্ডে অবৈধ অস্ত্র এবং গোলাবারুদ অনুপ্রবেশ প্রতিহত করতে দক্ষতার সাথে কাজ করে চলেছে।

পাশাপাশি ওই জাহাজ লেবানিজ জলসীমায় মেরিটাইম ইন্টারডিকশন অপারেশন পরিচালনা, সন্দেহজনক জাহাজ ও এয়ার ক্রাফটের উপর নজরদারী, দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজে উদ্ধার তৎপরতা এবং লেবাননের সামরিক সদস্যদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ প্রদানসহ লেবাননে বসবাসরত বাংলাদেশীদের নিয়মিত চিকিৎসা প্রদান করে যাচ্ছে।

 

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে লেবাননে মোতায়েনের পর থেকে এ পর্যন্ত ২ হাজার ৬৮৮ জন নৌ সদস্য সফলতার সাথে ওই মিশন সম্পন্ন করেছেন। লেবাননে বাংলাদেশের নৌসদস্যরা অত্যন্ত আন্তরিকতা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সাথে তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর গর্বিত এই অংশগ্রহণ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে দেশের ভাবমূর্তি ও সুনাম বৃদ্ধি করেছে।