ঢাকা ০৬:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চন্দনপুর ইউপির উপ – নির্বাচনে জয় পেলেন বিদ্রোহী প্রার্থী এবাদত উল্যাহ

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ১০:০৫:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩ ৪৪ বার পড়া হয়েছে

২৫ মে ২০২৩ইং, আজকের মেঘনা ডটকম, মেঘনা প্রতিনিধি :

 

 

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়ন পরিষদ উপ নির্বাচনে স্বতন্ত্র (আওয়ামিলীগের বিদ্রোহী) প্রার্থী মোঃ এবাদত উল্লাহ ১৪৭৬ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে জয় পেয়ে বাবার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া চেয়ার পেয়েছে ।

 

উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা, নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন সূত্রে এ তথ্য জানা যায়। এবাদত উল্লাহর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সেলিম সরকার (বিএনপি) চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ১৩০৯ ভোট। অন্যদিকে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মোঃ সেলিম আহম্মেদ ১২৪৯ ভোট পেয়ে ৩ য় স্থান অধিকার করেছেন। বিজয়ী এবাদত উল্লাহ র বাবা ৪ বারের চেয়ারম্যান প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আহছানউল্লাহ মাস্টারের বার্ধক্যজনিত কারনে মৃত্যুর পর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ শূণ্য হলে নির্বাচন কমিশন গতকাল বৃহস্পতিবার (২৫ মে) ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) পদ্ধতিতে এই প্রথম শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ করা হয় । ইউনিয়নটিতে ৯ টি ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ১১,৭,৯৬। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ১০(দশ) জন প্রার্থী। সদ্য বিজয়ী এবাদত উল্লাহ বিজয়ের পর বাবার কবর জিয়ারত করে এসে গণমাধ্যম কর্মীদের বলেন আমার বাবা জনগণকে ভালো বাসতেন, সেই ধারাবাহিকতা ধরে জনগণ আমাকে সুযোগ দিয়েছেন তাদের খেদমত করার জন্য।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

চন্দনপুর ইউপির উপ – নির্বাচনে জয় পেলেন বিদ্রোহী প্রার্থী এবাদত উল্যাহ

আপডেট সময় : ১০:০৫:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

২৫ মে ২০২৩ইং, আজকের মেঘনা ডটকম, মেঘনা প্রতিনিধি :

 

 

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়ন পরিষদ উপ নির্বাচনে স্বতন্ত্র (আওয়ামিলীগের বিদ্রোহী) প্রার্থী মোঃ এবাদত উল্লাহ ১৪৭৬ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে জয় পেয়ে বাবার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া চেয়ার পেয়েছে ।

 

উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা, নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন সূত্রে এ তথ্য জানা যায়। এবাদত উল্লাহর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সেলিম সরকার (বিএনপি) চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ১৩০৯ ভোট। অন্যদিকে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মোঃ সেলিম আহম্মেদ ১২৪৯ ভোট পেয়ে ৩ য় স্থান অধিকার করেছেন। বিজয়ী এবাদত উল্লাহ র বাবা ৪ বারের চেয়ারম্যান প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আহছানউল্লাহ মাস্টারের বার্ধক্যজনিত কারনে মৃত্যুর পর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ শূণ্য হলে নির্বাচন কমিশন গতকাল বৃহস্পতিবার (২৫ মে) ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) পদ্ধতিতে এই প্রথম শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ করা হয় । ইউনিয়নটিতে ৯ টি ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ১১,৭,৯৬। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ১০(দশ) জন প্রার্থী। সদ্য বিজয়ী এবাদত উল্লাহ বিজয়ের পর বাবার কবর জিয়ারত করে এসে গণমাধ্যম কর্মীদের বলেন আমার বাবা জনগণকে ভালো বাসতেন, সেই ধারাবাহিকতা ধরে জনগণ আমাকে সুযোগ দিয়েছেন তাদের খেদমত করার জন্য।