ঢাকা ১১:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেনাপোলে বিয়ের ৭ মাসের মাথায় প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৫:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২২ বার পড়া হয়েছে

যশোরের বেনাপোলে স্বামীর বাড়িতে ঘরের ফ্যানের সাথে উড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে সোনিয়া খাতুন মায়া (২১) নামে এক গৃহবধূ।
২৩ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকালে বেনাপোল সীমান্তের বাহাদুরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সোনিয়া খাতুন মায়া রাঙামাটি জেলার বরকল থানার আমতলী গ্রামের আব্দুল আউয়াল চৌধুরীর মেয়ে এবং বাহাদুরপুর গ্রামের নাজমুল হোসেনের স্ত্রী।

স্থানীয় ও পরিবারের স্বজনরা জানান, গত ৭ মাস আগে ফেইসবুকে পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক করে উভয় পক্ষের সম্মতিতে বিয়ে হয় নাজমুল সোনিয়া খাতুন মায়ার। বিয়ের কয়েক মাস পরে পরিবারের স্বচ্ছলতা ফেরাতে বিদেশে পাড়ি জমান নাজমুল।

স্বামী প্রবাসে যাওয়ার পর থেকেই প্রতিনিয়ত শ্বশুর শ্বাশুড়ির সাথে সংসারে বাকবিতন্ডা চলে আসছিলো গৃহবধূ সোনিয়া খাতুনের। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল পরিবারের লোকচক্ষুর আড়ালে নিজ ঘরের ফ্যানের সাথে উড়না পেঁচিয়ে জীবনের আত্মাহুতি দেন সোনিয়া।

বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ সুমন ভক্ত বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্টের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করেছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানা যাবে। এ বিষয়ে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

ট্যাগস :

বেনাপোলে বিয়ের ৭ মাসের মাথায় প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ০৮:৫৫:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

যশোরের বেনাপোলে স্বামীর বাড়িতে ঘরের ফ্যানের সাথে উড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে সোনিয়া খাতুন মায়া (২১) নামে এক গৃহবধূ।
২৩ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকালে বেনাপোল সীমান্তের বাহাদুরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সোনিয়া খাতুন মায়া রাঙামাটি জেলার বরকল থানার আমতলী গ্রামের আব্দুল আউয়াল চৌধুরীর মেয়ে এবং বাহাদুরপুর গ্রামের নাজমুল হোসেনের স্ত্রী।

স্থানীয় ও পরিবারের স্বজনরা জানান, গত ৭ মাস আগে ফেইসবুকে পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক করে উভয় পক্ষের সম্মতিতে বিয়ে হয় নাজমুল সোনিয়া খাতুন মায়ার। বিয়ের কয়েক মাস পরে পরিবারের স্বচ্ছলতা ফেরাতে বিদেশে পাড়ি জমান নাজমুল।

স্বামী প্রবাসে যাওয়ার পর থেকেই প্রতিনিয়ত শ্বশুর শ্বাশুড়ির সাথে সংসারে বাকবিতন্ডা চলে আসছিলো গৃহবধূ সোনিয়া খাতুনের। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল পরিবারের লোকচক্ষুর আড়ালে নিজ ঘরের ফ্যানের সাথে উড়না পেঁচিয়ে জীবনের আত্মাহুতি দেন সোনিয়া।

বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ সুমন ভক্ত বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্টের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করেছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানা যাবে। এ বিষয়ে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।